মেইন ম্যেনু

অতিরিক্ত ভাড়া: বিআরটিসি চেয়ারম্যানকে মন্ত্রীর শোকজ

ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য থেমে নেই।ব্যক্তিমালিকানাধীন বাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিআরটিসি বাসও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে।তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে আরেক সরকারি প্রতিষ্ঠান বিটিআরসি কর্তৃপক্ষ বাড়তি ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে মাঝেমধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করলেও বিআরটিসি বাসগুলো নিজেরাই যাত্রীদের জিম্মি করে আদায় করছে বাড়তি ভাড়া।

এ নিয়ে পত্র-পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও আজ সোমবার সেতু ও সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সরজমিন গিয়ে বিআরসিটি বাসের বাড়তি ভাড়া আদায়ের চিত্র দেখতে পান।

ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ ও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করায় সংস্থাটির চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার বিকালে সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে মন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।

সম্প্রতি গ্যাসের দাম বাড়ার পর পরিবহন নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে ঢাকা ও চট্টগ্রামে সিএনজিচালিত বাসের ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়। সেতুমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে এই ভাড়া বাড়ানোর ঘোষণা দেন।

গত ১ অক্টোবর থেকে এই ভাড়া কার্যকর হয়েছে। প্রতি কিলোমিটারে ১০ পয়সা ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হলেও বাস মালিকরা প্রথমে তা মানলেও বাস্তবে যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করছে বিশ ভাড়া। নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায়ের প্রচুর অভিযোগ প্রতিদিনই পাওয়া যাচ্ছে। এমনকি সরকারি সংস্থা বিআরটিসিও নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি আদায় করছে, যা মন্ত্রী সরেজমিনে গিয়ে দেখতে পান। পরে তিনি সংস্থাটির চেয়ারম্যানকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিলেন।






মন্তব্য চালু নেই