মেইন ম্যেনু

অতিরিক্ত মদ্যপানের পর প্রত্যুষার আত্মহত্যা!

ভারতীয় টেলিভিশনের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বালিকা বধূর’ পরিচিত মুখ প্রত্যুষা বন্দ্যোপাধ্যায় অতিরিক্ত মদ্যপান করার পর আত্মহত্যা করেছেন বলে সর্বশেষ মেডিকেল প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের।

রোববার টাইমস অব ইন্ডিয়ার ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ সংক্রান্ত একটি মেডিকেল রিপোর্ট পুলিশের হাতে এসেছে। ওই মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রত্যুষার রক্তে ১৩৫ মিলিগ্রাম অ্যালকোহল পাওয়া গেছে। তার মানে ০১ এপ্রিল তিনি মাত্রাতিরিক্ত মদ্যপান করেছিলেন। চিকিৎসকদের মতে, এই পরিমাণ অ্যালকোহল গ্রহণ করলে মানুষ নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। আর এভাবেই নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েই প্রত্যুষা ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন।

তবে এ ধরনের চূড়ান্ত পদক্ষেপ নেওয়ার কারণ সম্পর্কে কোনো কিছু জানানো হয়নি হাসপাতালের ওই প্রতিবেদনে।

১ এপ্রিল মুম্বাইয়ের ফ্ল্যাট থেকে প্রত্যুষার গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে পুলিশ অনুমান করেছিল, প্রত্যুষা আত্মহত্যা করেছেন। পরে ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে জানানো হয়, শ্বাসরোধে প্রত্যুষার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার পর প্রত্যুষা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মা সোমা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রত্যুষার আত্মহত্যায় প্ররোচনার দায়ে তাঁর প্রেমিক অভিনেতা-প্রযোজক রাহুল রাজ সিংকে অভিযুক্ত করেন। এ অভিযোগের
ভিত্তিতেই বাঙ্গুর নগর থানার পুলিশ রাহুলকে আটক করে। পরে তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তবে রাহুল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে রাহুল আদালত থেকে শর্ত সাপেক্ষে আগাম জামিন নেন।
এরপর জে জে হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, প্রত্যুষা বন্দ্যোপাধ্যায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর আগে অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। মৃত্যুর আগে সম্ভবত তিনি একবার গর্ভপাতও করিয়েছিলেন।

প্রত্যুষা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: ইনস্টাগ্রাম থেকে সংগৃহীততদন্ত-সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, পরীক্ষায় দেখা গেছে, মৃত্যুর মাসখানেক আগে প্রত্যুষা অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। ভ্রূণটির অপরিণত অবস্থায় মৃত্যু হয়। প্রত্যুষার জরায়ুর কোষ পরীক্ষায় দেখা গেছে, তিনি গর্ভপাত করিয়েছিলেন বা গর্ভপাত হয়েছিল।

এ ঘটনার পর গত বৃহস্পতিবার টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে রাহুল বলেছিলেন, প্রত্যুষা অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি জানালে তাঁরা দুজনে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বিষয়টি নিশ্চিত হন। যেহেতু তাঁরা তখনো বিয়ে করেননি, শুধু একসঙ্গে থাকেন মাত্র—এ কারণে তাঁরা দুজনেই আলোচনার ভিত্তিতে গর্ভপাত করার সিদ্ধান্ত নেন। পরে তাঁরা গর্ভপাত করানোর জন্য চিকিৎসকের কাছে যান। যেহেতু তাঁরা দুজনে নভেম্বরে বিয়ে করার চিন্তা করছিলেন, এ কারণে ভবিষ্যতের কথা ভেবে প্রত্যুষার গর্ভপাত করানো হয়।

কলকাতার জামশেদপুরের মেয়ে প্রত্যুষা বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন। তাঁর অভিনীত শেষ সম্প্রচারিত ধারাবাহিক ‘শ্বশুরাল সিমার কি’। রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস ৭’-এ দেখা গেছে তাঁকে।






মন্তব্য চালু নেই