মেইন ম্যেনু

অধিনায়কত্ব হারাচ্ছেন আফ্রিদি?

বাংলাদেশকে হারিয়ে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি। মাশরাফির দলের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে ঔজ্জ্বল্য ছড়িয়ে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে পরাস্ত হওয়ার পর আবার তোপের মুখে পাকিস্তানের অধিনায়ক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে হারাতে পারেন অধিনায়কত্ব।

ভারতের বার্তাসংস্থা পিটিআইকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, ‘আফ্রিদির পারফরম্যান্স ও অধিনায়কত্ব নিয়ে বোর্ডের মধ্যে পরিষ্কার অসন্তোষ আছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর তিনি অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেও বোর্ড তাঁকে অধিনায়কের দায়িত্বে না-ও রাখতে পারে। এমনকি খেলোয়াড় হিসেবেও তাঁকে হয়তো খুব বেশিদিন দেখা যাবে না।’

ভারতে এসে প্রথম সংবাদ সম্মেলনেই আফ্রিদি বলেছিলেন, নিজের দেশের চেয়েও ভারতের মানুষের বেশি ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। তেব এই বক্তব্য পিসিবি ভালোভাবে নেয়নি বলে জানিয়েছে সেই সূত্র, ‘গণমাধ্যমে আফ্রিদির বিবৃতি নিয়েও খুশি নয় বোর্ড। বোর্ডের অনেকেরই বিশ্বাস, পরিবর্তনের সময় এসেছে।’ পরিবর্তনটা যে অধিনায়কত্বের, সেই ইঙ্গিতও দিয়েছে সূত্রটি।

শুধু আফ্রিদি একা নন, ওয়াকার ইউনিসও ‘চাকরি’ হারানোর শঙ্কায়। আগামী জুলাইয়ে পাকিস্তানের ইংল্যান্ড সফরে কোচের দায়িত্বে না-ও থাকতে পারেন তিনি। পিসিবির আরেকটি সূত্র পিটিআইকে জানিয়েছে, ‘শুরুতে ইংল্যান্ড সফর পর্যন্ত ওয়াকারের চুক্তি নবায়নের পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু এখন তা অসম্ভব বলেই মনে হচ্ছে। এরই মধ্যে বিদেশি বা স্বদেশের অন্য কোচের ব্যাপারে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে।’

বিদেশি কেউ না হলে ওয়াকারের উত্তরসূরী হিসেবে দেখা যেতে পারে আকিব জাভেদকে। সাকেব পেসার আকিব পাকিস্তানের অনূর্ধ্ব-১৯ ও ‘এ’ দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ছিলেন জাতীয় দলের বোলিং কোচও।






মন্তব্য চালু নেই