মেইন ম্যেনু

অনুমোদন ছাড়াই ৬ বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন বিভাগ খোলার চেষ্টা, ইউজিসির হুঁশিয়ারি

অনুমোদন ছাড়াই ৬ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় বেশ কয়েকটি বিভাগ খোলার চেষ্টা করার অভিযোগ পাওয়ার পর ইউজিসি তা নাকচ করে দিয়েছে। এই ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয় হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, গোলাপগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়। এই ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয়কে হুঁশিয়ারি দিয়ে রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) গণবিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেছে ইউজিসি।

গণবিজ্ঞপ্তিতে ইউজিসি বলেছে, সম্প্রতি বেশ কয়েকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ইউজিসি’র পূর্বানুমোদন না নিয়ে নতুন অনুষদ, বিভাগ, ইনস্টিটিউট, সেন্টার বা কোর্স খোলা ও জনবল নিয়োগ এবং শিক্ষার্থী ভর্তি করা হচ্ছে। কিন্তু ইউজিসি’র পূর্বানুমোদন না নিয়ে এটা করা যাবে না। কিন্তু কোনও বিশ্ববিদ্যালয় যদি এমন অনিয়ম করে বিভাগ খোলে এবং ওই বিভাগ থেকে যেসব শিক্ষার্থী পাস করে বের হবেন, তাদের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকেই। এছাড়া ওই খাতে ইউজিসি কোনও অর্থও ছাড় দেবে না।

ইউজিসি সূত্রে জানা গেছে, ইউজিসির অনুমোদন ছাড়াই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বায়োমেডিক্যাল বিভাগ; যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নার্সিং বিভাগ; কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজকর্ম, ম্যানেজমেন্ট অব ইনফরমেশন সিস্টেম ও ফার্মেসি বিভাগ; গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষি ও ফিসারিজ বিভাগ; রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং চট্টগ্রাম বঙ্গবন্ধু মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন তিনটি বিষয় খোলার জন্য কার্যক্রম শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ইউজিসি’র একটি সূত্র জানায়, দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৮টি বিষয়ে পাঠদানের অনুমতি রয়েছে। আগামী শিক্ষা বর্ষে অনার্সে ভর্তির জন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বিষয়ভিত্তিক আসন সংখ্যার তালিকা পাঠায় ইউজিসিতে। এ সময় ওই সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি অনুমোদনহীন বিষয় ধরা পড়ে। এরপরই ইউজিসির পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারি করে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ইউজিসি’র পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শাখার অতিরিক্ত পরিচালক ফেরদৌস জামান বলেন, ‘কোনও কোনও বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের পূর্বানুমোদন না নিয়েই বিভাগ খোলার সব কার্যক্রম সম্পন্ন করেছিল। ফলে আমরা তা বন্ধ করেছি। বিভাগ খুলতে হলে নিয়ম মেনে খুলতে হবে’।

এ ব্যাপারে ইজিসির সদস্য অধ্যাপক দিল আফরোজা বেগম বলেন, ‘দুটি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয় খোলার জন্য আবেদন করলেও আমরা নাকচ করে দিয়েছি। তারপরও ওই সব বিশ্ববিদ্যালয় যদি ইউজিসির অনুমোদন ছাড়া বিষয় খোলে তার দায়-দায়িত্ব ইউজিসি নেবে না। এ বিষয়ে কোনও অর্থ বরাদ্দও দেওয়া হবে না’।






মন্তব্য চালু নেই