মেইন ম্যেনু

অন্ধ ভিক্ষুক চরিত্রে অভিনেতা সজল

আগেও বলেছি একজন অভিনেতা যখন কোন ভালো গল্পে অভিনয় করেন তখন চরিত্রটি যাই হোক না কেন তিনি অভিনয় করে থাকেন। কারণ একমাত্র তার অভিনয়কে ভালোবাসেন বলে। তবে কিছু গল্পের চরিত্র থাকে যা শুধু অবাকই করেনা রীতিমত বিশ্বাস করতে হয় তিনি একজন ভালো অভিনেতা। বলছি অভিনেতা আব্দুন নূর সজলের কথা। ভদ্র ও একজন রোমান্টিক অভিনেতা তিনি। আজ পর্যন্ত তাকে নিয়ে মিডিয়াতে কোন ধরণের বাজে অভিযোগ নেই।

তবে এবার একটি ভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করলেন তিনি। তাও অন্ধ ভিক্ষুকের চরিত্রে। এবারই প্রথম অভিনয় করেছেন এ ধরনের চরিত্রে। টেলিফিল্মটির নাম ‘রুপের গল্পে অন্ধ চাতক’। এটি পরিচালনা করেছেন তাসলিমা মুক্তা। এতে সজলের বিপরীতে অভিনয় করছেন আরেক তুখোর অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ। বেশ কয়েকদিন আগে কদিন আগে রাজধানীর আগারগাঁও বস্তিতে টেলিফিল্মটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে।
এ বিষয়ে সজল বলেন, ‘ভিক্ষুক হিসেবে অভিনয় করতে গিয়ে আমার বেশ ভালো একটি অভিজ্ঞতা হয়েছে। প্রায় ৭১২ টাকা উঠেছিল। এই চরিত্রটি থেকে আমি শিখেছি মন দিয়ে মানুষের কাছে কিছু চাইলে কেউ খালি হাতে ফেরায় না।’

উল্লেখ্য, অভিনেতা সজল ‘রান আউট’ চলচ্চিত্রটির মাধ্যমে তাঁর বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে। এবার তিনি দ্বিতীয় চলচ্চিত্র শুরু করতে যাচ্ছেন। এটির নাম ‘হারজিত’। বদিউল আলম খোকনের পরিচালনায় এতে সজলের বিপরীতে অভিনয় করবেন জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। এবছরের মে মাসে চলচ্চিত্রটির দৃশ্যধারণ হবে বলে জানায় নির্মাণ সূত্র।






মন্তব্য চালু নেই