মেইন ম্যেনু

অবশেষে চলে গেলেন চেয়ারম্যান আজাদ

জয়পুরহাটে দুর্বৃত্তদের গুলিতে আহত সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের ২য় ধাপে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান একে আজাদ ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

রোববার সকাল ৬টায় চিকিৎসাধীন থাকার আট দিন পর ঢাকার পপুলার হাসপাতালে তিনি মারা যান। গত ৪ জুন রাত ১০টার দিকে তাকে কুপিয়ে ও গুলি করে মারাত্বক আহত করে দুর্বৃত্তরা।

জয়পুরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেন জানান, ভাদশা ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান একে আজাদ ৪ জুন রাতে একই উপজেলার দূর্গাদহ বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন।

নিজ গ্রাম কোঁচকুঁড়ি গ্রামের কাছাকাছি পৌঁছামাত্র একদল মুখোশধারী দুর্বৃত্ত তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গুলি করে মারাত্মক আহত করে। এসময় তার আর্তচিৎকার শুনে নয়ন কুমার বর্মন নামে এক পথচারি এগিয়ে গেলে তাকেও গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

গুরতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ও পরে বগুড়ার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার আরো অবনতি হলে ওই দিন রাতেই তাদেরকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই