মেইন ম্যেনু

‘অবহেলায়’ সন্তানের মৃত্যুতে মায়ের ৫ বছরের কারাদণ্ড

পাঁচ বছরের সন্তান যখন পানিতে ডুবে মারা যাচ্ছিল, তখন ফেসবুকে ব্যস্ত ছিলেন ব্রিটিশ মা। আর তাই সন্তানের প্রতি অবহেলার অপরাধে ঐ ব্রিটিশ নারীকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে যুক্তরাজ্যের আদালত।

ক্লেইরে বার্নেট নামের ঐ নারীর সমালোচনা করে বিচারক বলেন, ‘তিনি একজন দায়িত্বজ্ঞানহীন অভিভাবক। তার দায়িত্বে থাকা কোনো শিশুই নিরাপদ নয়।’

জশুয়া বার্নেট নামের সেই শিশু ২০১৪ সালের ১৭ই মার্চ পানিতে ডুবে মারা যায়। বাড়ির পাশের একটি পুকুরে ডুবে যায় সে। সেসময় তার মা, মোবাইলে ফেসবুকিং করছিলেন। পরে মা, সন্তানকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেও হাসাপাতালে মৃত্যু হয় শিশুটির।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে এমনটাই তথ্য দেন বার্নেট। এছাড়া জশুয়াকে মাঝে মধ্যেই রাস্তায় ছেড়ে দিতেন বলেও জানান তিনি। প্রতিবেশিরা জানায়, একবার অল্পের জন্য গাড়ির ধাক্কা থেকে বেঁচে যায় জশুয়া।

বিচারক জেরেমি রিচার্ডসন বলেন, ‘তোমার সন্তান আসলে তোমার অবহেলার কারণেই মারা গেছে। সারাজীবন তোমার এই অনুতাপ নিয়ে বেঁচে থাকতে হবে।’

সূত্র: ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিস






মন্তব্য চালু নেই