মেইন ম্যেনু

অবিরাম ধর্মঘটের হুমকি শিক্ষক-কর্মচারীদের

বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের আগের মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রজাতন্ত্রের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে একযোগে বেতন স্কেল কার্যকরের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোট। দাবি না মানলে ঈদের পরে অবিরাম ধর্মঘটসহ বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার হুঁশিয়ারিও দেয় সংগঠনটি।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোট আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিবাদ জানায় সংগঠনটি।

বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন স্কেল অষ্টম বেতন কমিশনের পেশ করা রিপোর্টে সরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের চেয়ে ছয় মাস পরে কার্যকর করার কথা উল্লেখ করায় প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মুহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘দেশে প্রায় ২৬ হাজার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঁচ লক্ষাধিক শিক্ষক কর্মচারী পঞ্চম, ষষ্ঠ ও সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের পরের দিন থেকেই সরকারি সকল শিক্ষক-কর্মচারীদের সঙ্গে একযোগে বেতন পেয়ে আসছেন। কিন্তু গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ সালে অষ্টম বেতন স্কেল অনুযায়ী বেসরকারি শিক্ষকদের বেতন ছয় মাস পরে কার্যকর করার সুপারিশ করা হয়েছে। ফলে সারা দেশের শিক্ষক সমাজ ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বেতন স্কেল রিপোর্ট পেশ করার পর দিন থেকে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগের মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবে এক যোগে বেতন স্কেল কার্যকর করার জন্য বিভিন্নভাবে আন্দোলন করে যাচ্ছি। কিন্তু এই বিষয়ে সরকারের সুস্পষ্ট কোনো ঘোষণা এখনো পাইনি। স্বল্প সময়ের মধ্যেই সরকার এই ব্যাপারে নির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আমরা আশা প্রকাশ করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বেসরকারি কারিগরী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো শাহাজান আলম, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সমিতির সভাপতি এস এম বারী, শিক্ষক ঐক্য পরিষদের সভপতি আবুল কাশেম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই