মেইন ম্যেনু

অবিরাম বৃষ্টির কারনে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কাঁচামালের দাম দ্বিগুণ

রমজানের প্রভাবে সাতক্ষীরার কাঁচা বাজার গুলোতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে পণ্যের দাম দ্বিগুন হয়েছে। জেলার বাজার গুলোতে গতকাল বৃহস্পতিবার ঘুরে প্রতিটি পণ্যের মূল্য তেজী ভাব লক্ষ্য করা গেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে অবিরাম বৃষ্টির কারনেই সব্জির দাম বেড়েছে বলে ব্যবসায়ীদের অভিমত।
কাঁচা বাজারে প্রতি কেজি কাঁচা ঝাল ৮০ থেকে ৯০ টাকা, বেগুন ৯০ থেকে ১০০ টাকা, কচুর মুখি ৩৫ টাকা,কুমড়া ১৮ থেকে ২০ টাকা, আলু ২০ টাকা, পিয়াজ ২৮ থেকে ৩০ টাকা, রসুন ৬০ থেকে ৭০ টাকা, কচু ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
বাজারে ক্রেতাদের সাথে জানা গেছে, গত সপ্তাহ থেকে বাজারের প্রতিটি পণ্যের মূল্য দ্বিগুন হয়েছে। গত সপ্তাহে কাঁচা ঝাল বিক্রি হয়েছিল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা।বেগুন ৫৫ টাকা ৬৫ টাকা , কুমড়া বিক্রি হয়ে ছিল ১২ থেকে ১৪ টাকা।
মাংশের বাজারে প্রতি কেজি পোল্ট্রি বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকা। যা গত সপ্তাহর চেয়ে একটু কম। গরুর মাংশ বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ টাকা এবং খাসির মাংশ বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা দরে। গরু খাশির মাংশের দাম স্থিস্তিশীল রয়েছে।
যে সমস্ত পণ্য ইফতারের সাথে সম্পৃক্ত তা কয়েকদিনের ব্যবধানে ১৫ থেকে ৩০ টাকা বৃর্দ্ধি পেয়েছে। গত সপ্তাহে শশার দাম ছিল ২০ থেকে ২৮ টাকা কেজি। সেই শশা এক লাফে বেড়ে গিয়ে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ইফতারে প্রধান উপকরণ ১৩০ টাকা দরের খেজুর বিক্রি হচ্ছে ১৮০ টাকায়।
বাজারে পণ্যের বিক্রয় দামের উপর কোন নিয়ত্রন নেই। নেই কোন নজরদারী। ফলে বাজারের ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে পণ্যের মূল্য ইচ্ছা মত বাড়াচ্ছেন ।
বাজারের সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র আওয়ার নিউজকে জানিয়েছেন, বেশ কিছু দিন ধরে অবিরাম বৃষ্টির কারনে বাজারের এই অবস্থা। অব্যাহত বৃষ্টির কারনে বেগুন,কাঁচাঝাল বরবটি সহ বিভিন্ন ধরনের সব্জির সাভাবিক সরবরাহ কমে গেছে। আর সরবরাহ কম থাকার কারনেই পণ্যের মূল্য বেড়ে গেছে।
জেলার হাজারো ক্রেতাগন বিভিন্ন বাজারে টাঙ্ক ফোর্স এর নজরদারী বাড়ানো ও অভিযান চালিয়ে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখার জন্য জোর দাবী জানিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই