মেইন ম্যেনু

অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ বন্ধ ও গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিলেন সাংসদ

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ নীলফামারীতে নর্থ পোলট্রি ফার্মের অবৈধভাবে জমি দখল রোধ, স্থপনা নির্মাণ বন্ধ সহ নিরীহ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে নীলফামারী ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী।

তিনি বৃহস্পতিবার চারমাথা বাজারে গ্রামবাসীর এক সমাবেশে দুপুরে এসব প্র্রতিশ্রুতি দেন। এ সময় সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম, নীলফামারী জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জোবায়ের হোসেন, কিশোরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মেহেদী হাসান, সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) সাজেদুর রহমান ও কিশোরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান ।

এ সময় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী আরো বলেন, অন্যায়ভাবে জনগন হয়রান হোক আমরা তা চাইনা। অচিরেই বিবদমান পরিস্থিতি নিরসন করা হবে। নর্থ পোল্ট্রি ফার্মের কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে তলব করা হবে। চাঁদখানা চরকবন্দের ২৬ মৌজার কোন জমি এর মধ্যে নিবন্ধন করা হবে না। এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ সাব-রেজিষ্টারকে ডিও লেটার দেয়া হবে।

এ সময় তিনি আরো বলেন, দালাল চক্রের হোতা সহ সকলের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। গত ২৭ ফেব্রুয়ারী নর্থ পোলট্রি ফার্ম কর্তৃপক্ষ ও তাদের জমি ক্রয় দালাল চক্র’র হোতা মিজানুুর রহমান দুলাল সহ তার সঙ্গীরা চাঁদখানা চরকবন্দে অবৈধভাবে জমি দখল করতে গেলে গ্রামবাসীর সাথে সংঘর্ষ বাঁধে। প্রায় দু’ঘন্টা ব্যাপী উভয়পক্ষের সংঘর্ষ চলে। এসময় কিশোরগঞ্জ পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। পরে নর্থ পোল্ট্রি ফার্ম কর্র্তৃপক্ষ গ্রামবাসীকে হয়রানী করার জন্য কিশোরগঞ্জ থানায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারী চাাঁদাবাজি, ভাংচুর, হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করে।

গত ১ মার্চ রাতে পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারের জন্য এলাকার প্রতিটি বাড়ীতে চিরুনি অভিযান চালায়। পুলিশি হয়রানী বন্ধে এলাকাবাসী নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী ও নীলফামারী জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করে।






মন্তব্য চালু নেই