মেইন ম্যেনু

বাংলা ভাষায় আরবী-র্ফাসী-তুর্কী-হিন্দী-উর্দু শব্দের

অভিধান প্রকাশনার অভিজ্ঞতা বিনিময়

রচনাকাল ১৯৬১ আর প্রকাশনা ২০০৪। বাংলা ভাষায় আরবী র্ফাসী তুর্কী হিন্দী উর্দু শব্দের অভিধান রচনা থেকে প্রকাশনা হতে প্রায় ৪২ বছরের অভিজ্ঞতা বিনিময় করলেন বইটির প্রণেতা অধ্যাপক কাজী রফিকুল হক। ২৫ জানুয়ারি, সোমবার গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগের আমন্ত্রণে ছাত্র শিক্ষকদের মধ্যে তিনি এ অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা অধ্যাপক কাজী রফিকুল হক জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে এমএ পাশ করার পরপরই ভাষা বিজ্ঞানী ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ এর অনুপ্রেরণায় ১৯৬১ সালে রচনা করেন বাংলা ভাষায় আরবী র্ফাসী তুর্কী হিন্দী উর্দু শব্দের অভিধান। এরপর নানা প্রতিকূলতা কাটিয়ে ২০০৪ সালের এপ্রিলে বাংলা একাডেমী কর্তৃক প্রকাশ হয় অভিধানটি। একটি অভিধান প্রকাশে তার ৪২ বছরের সেইসব দিনের কথা স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

অধ্যাপক কাজী রফিকুল হকের সেইসব অভিজ্ঞতার কথা শুনতে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি ডা. জাফরউল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেন একটি ভাষা শুধু তার শক্তিতে বলীয়ান হয়না। অন্য ভাষাকে গ্রহণ করে সে সমৃদ্ধ হয়। তাই এর ইতিহাস পরবর্তী প্রজন্মকে অবশ্যই জানতে হবে। বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত ৪৬৪৯টি বিদেশী শব্দ সমৃদ্ধ বইটি গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রকাশের আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মাহমুদ শাহ কোরেশীর সভাপতিত্বে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ইংরেজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মনসুর মুসা, রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড.এম নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক আতাউর রহমান খান এবং গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ লায়লা পারভীন বানু।






মন্তব্য চালু নেই