মেইন ম্যেনু

অমুসলিমদের জন্য সৌদির মসজিদ পরিদর্শনের সুযোগ!

সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থিত চারটি মসজিদে পরিদর্শন করার সুযোগ পাচ্ছেন অমুসলিম দর্শনার্থীরা। ইসলামি সভ্যতা ও সংস্কৃতি সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার জন্য ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের এ মসজিদ পরিদর্শনের সুযোগ দিয়েছেন দেশটির উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। মসজিদ পরিদর্শনে যথাযথ সম্মান প্রদর্শনের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি রাখতে বলা হয়েছে। যাতে কোনোভাবেই আল্লাহর ঘরের পবিত্রতা তথা মর্যাদাহানি না ঘটে। খবর সৌদি গেটেটের।

জানা যায়, অমুসলিম পর্যটকরা সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থিত স্থাপত্য শিল্পের অনন্য সৌন্দর্যমণ্ডিত চারটি বিখ্যাত মসজিদ পরিদর্শন করতে পারবে।

মসজিদগুলো হলো-

আল রাহমা;

লোহিত সাগর তীরবর্তী অনন্য স্থাপত্য শিল্পের দর্শনীয় মসজিদ আর রাহমা। দেখতে দ্বীপের মতো লাগলেও এর ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে সাগরবুকে।

আত তাকওয়া;

উত্তর জেদ্দায় অবস্থিত সাড়ে সাতশ` বর্গ মিটারের মসজিদ আত তাকওয়া ২০০৫ সালে নির্মিত। এতে সাড়ে ৪ শত মুসল্লি এক সঙেগ নামাজ আদায় করতে পারে।

কিং ফাহাদ;

মরক্কোর স্থাপত্যশিল্পের এক অপূর্ব নির্দশনে তৈরি জেদ্দার কিং ফাহাদ মসজিদটি। যা সৌদি আরবের অন্য কোনো মসজিদের সঙ্গে এর মিল খুজে পাওয়া যায় না।

কিং সৌদ মসজিদ;

৯৭০০ বর্গ মিটারের সুবৃহৎ কিং সৌদ মসজিদটি জেদ্দার সবচেয়ে বড় মসজিদ। এ মসজিদের গুম্বুজটিও অনেক বৃহৎ। যার সঙ্গে সম্বয় ঘটেছে সুউচ্চ মিনারটির। ১৯৮৭ সালে নির্মিত এ মসজিদটির নকশার হলেন মিসরের বিখ্যাত স্থপতি আবদেল ওয়াহেদ ওয়াকিল।






মন্তব্য চালু নেই