মেইন ম্যেনু

অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় আরও এগিয়ে যেতে হবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কৃষকদের বিশেষ করে বর্গা চাষীদের বিনা জামানতে কম সুদে ঋণ দেয়ার ব্যবস্থা করেছি। আমরা এখন কৃষিতে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছি। এখন কারো কাছে হাত পাততে চাই না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাছাড়া আমরা কেন অন্যের কাছে হাত পাতবো। যে জাতি মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে দেশ স্বাধীন করেছে সে জাতি অন্যের কাছে হাত পাততে পারে না। আওয়ামী লীগ সরকার সে দিকেই অগ্রসর হচ্ছে।

আজ বুধবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে দুগ্ধ উৎপাদনকারী ক্ষুদ্র চাষীদের ঋণদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কেবল কৃষিতেই নয় অনেক সেক্টরে আমাদের অর্জন ভালো। পোল্ট্রি শিল্প থেকে শুরু করে দুগ্ধ উৎপাদন, মৎস্য উৎপাদনে আমাদের অবস্থান অনেক ভালো। আওয়ামী লীগ সরকার কৃষিজাত পণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে রপ্তানির উদ্যোগ জোরদার করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিদেশে আমাদের দুগ্ধজাত পণ্যের বিশাল বাজার রয়েছে। কেননা বিদেশে বহু বাঙালি রয়েছে যারা দেশি পণ্য কেনার জন্য উৎগ্রিব হয়ে আছেন। অর্থাৎ আমি বলতে চাই বিদেশে আমাদের কৃষিজাত পণ্যের অনেক বাজার রয়েছে। এগুলোকে কাজে লাগাতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গতকাল দুইটি যাত্রীবাহী বিমানের উদ্বোধন করেছি। আমি তাদেরকে কার্গো বিমান কিনতে বলেছি, যাতে করে আমরা আমাদের পণ্য বিদেশে আমাদের বিমানে পাঠাতে পারি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদেরকে দেশের ভেতরে অন্তত ১০০টি শিল্পাঞ্চল গড়ে তুলতে হবে এবং সেখানে যাতে দেশি-বিদেশি সবাই বিনিয়োগ করতে পারবে। আমাদের টার্গেটই সেটাই, আমরা সেভাবেই অগ্রসর হচ্ছি। এর আগে বিশ্বজুড়ে যে মন্দাবস্থা দেখা দিয়েছিল তাতে কিন্তু বাংলাদেশকে টাচ করতে পারেনি। আমাদের সচেতনতার কারনেই সেটা সম্ভব হয়েছে। আমরা এ পর্যন্ত যতটা উন্নতি করেছি সেটা ধরে রেখে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।






মন্তব্য চালু নেই