মেইন ম্যেনু

অর্থপাচার মামলায় মোশারফের বিচার শুরু

অর্থপাচারের মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিচার শুর হয়েছে আদালতে।

বুধবার অবশিষ্ট শুনানি শেষে ঢাকার এক নম্বর বিশেষ জজ আতাউর রহমান আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করলে আনুষ্ঠানিক বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়। চার্জ গঠন শেষে বিচারক সাক্ষ্যগ্রহনের জন্য আগামি ২৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন।

চার্জ গঠনের সময় জেলহাজত থেকে আসা মোশাররফ হোসেন আদালতে হাজির ছিলেন। এর আগে গত ১৮ অক্টোবার আংশিক চার্জ শুনানি শেষে অবশিষ্ট চার্জ শুনানির জন্য ২৮ অক্টোবর দিন ধার্য করা হয়।

গত ১২ মার্চ রাত ১০টায় দুদক উপ-পরিচালক আহসান আলীর নেতৃত্বে একটি দল গুলশান থানা পুলিশের সহযোগীতায় খন্দকার মোশাররফকে তার গুলশানের বাসা থেকে আটক করে। এরপর দিন গত ১৩ মার্চ মামলাটিতে তার ৩ দিনের রিমান্ড রিমান্ড মঞ্জুর করে সিএমএম আদালত।

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যে ৯ কোটি ৫৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩৮১ টাকা পাঁচারের অভিযোগে গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর রমনা মডেল থানায় দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ার এই মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, খন্দকার মোশাররফ ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দুর্নীতি ও মানিলন্ডারিংয়ের মাধ্যমে যুক্তরাজ্যের একটি প্রাইভেট ব্যাংকে তার নিজের ও স্ত্রী বিলকিস আক্তারের যৌথ নামে ৮ লাখ ৪ হাজার ১৪২ ব্রিটিশ পাউন্ড পাচার করেন। যা বাংলাদেশি টাকায় ৯ কোটি ৫৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩৮১ টাকার সমপরিমান। এ টাকা তিনি বিভিন্ন সময় ১০৮৪৯২ নম্বরে ফিক্সড টার্ম ডিপোজিট হিসেবে জমা করেন।

এজাহারে আরও বলা হয়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বিগত চারদলীয় জোট সরকারের আমলে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী থাকা অবস্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রচুর অর্থ-সম্পত্তির মালিক হয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই