মেইন ম্যেনু

অর্থমন্ত্রীকে প্রধান করে বেতনবৈষম্য দূরীকরণে কমিটি পুনর্গঠন

অর্থমন্ত্রীকে প্রধান করে বেতনবৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন করে গঠন করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার।

বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রীকে আহ্বায়ক করে পুনর্গঠিত কমিটিতে শিল্প, বাণিজ্য, আইন ও শিক্ষামন্ত্রী, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী/প্রতিমন্ত্রী এবং অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীকে সদস্য করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব, অর্থ বিভগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব, সচিব বা ভারপ্রাপ্ত সচিব এই কমিটিকে সহায়তা করবেন।

এই কমিটিকে জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনিষ্পন্ন ‘কেইসসমূহ’ পর্যালোচনা করা, বেতন স্কেলে অভিযোগের বিষয়ে প্রাপ্ত অভিযোগ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় সুপারিশ দিতে বলা হয়েছে। অর্থ বিভাগ এই কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা করবে।

অষ্টম বেতন কাঠামোতে ‘সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক’ পদটি বিলুপ্ত করে সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক ও জ্যেষ্ঠ অধ্যাপকদের সচিবদের সমান গ্রেড-১ দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়। অন্যদিকে জ্যেষ্ঠ সচিবদের জন্য নতুন একটি বিশেষ গ্রেড তৈরি করে সরকার।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের দাবি, আমলারা নিজেদের জন্য বিশেষ গ্রেড তৈরি করলেও শিক্ষকদের সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক পদটি বিলুপ্ত করা হয়েছে। ফলে আমলাদের নিচের স্কেলেও বেতন পাবেন অধ্যাপকরা।

এর আগে গত বছরের ২৪ এপ্রিল অর্থমন্ত্রীকে আহ্বায়ক করে বেতনবৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার কমিটি করে সরকার। ওই কমিটিতে তথ্য ও শিক্ষামন্ত্রী, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এবং জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী সদস্য হিসেবে ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই