মেইন ম্যেনু

অলিম্পিকের জন্যও গান গাইলেন পেলে

তাঁকে ‘শিল্পী’ বললে ভুল হবে না একটুও। ফুটবল মাঠে তিনি যা করেছেন, সবকিছুই তো জাদুকরী সুরের মতোই ঘোর লাগানো। তবে যেটাকে সংগীত বলা হয়, তার সঙ্গে পেলের সম্পর্কটা অনেকটা শখের।

গিটার নিয়ে টুং টাং করেন, মাঝে মধ্যে নিজেই গান লেখেন, সুর করেন। এই তো ব্রাজিলে হয়ে যাওয়া সর্বশেষ বিশ্বকাপের সময়ই একটা গান লিখে ভালোই সাড়া পেয়েছেন। এবার নিজের দেশে হতে যাওয়া অলিম্পিক সামনে রেখেও আরেকটা গান লিখে ফেললেন ‘ফুটবলের রাজা’।

পেলের সংগীত অনুরাগ অবশ্য আগেও বেশ কয়েকবার প্রকাশ পেয়েছে। অনেক আগে এক সাক্ষাৎকারে নিজেকে তুলনা করেছিলেন সুরসম্রাট বিঠোফেনের সঙ্গে ৷ তারপর একবার বলেছিলেন, জনপ্রিয় ব্রিটিশ ব্যান্ড ‘ওয়ান ডিরেকশনে’ যোগ দিতে চান।

সর্বশেষ বিশ্বকাপের সময় তো ‘অফিশিয়াল থিম সং’ ভালো না লাগায় ব্রাজিল সমর্থকদের জন্য আলাদা করে একটা গান লিখে নিজেই রেকর্ডও করেছিলেন। ‘কত সুখ, কত কান্না দিয়েছে এই ফুটবল, এ আমাদের জাতির ধমনীতে’—এমন কথার সেই গানটা বেশ জনপ্রিয়ও হয়েছিল ব্রাজিলে।

ফুটবলের সঙ্গে না হয় তাঁর রক্তের সম্পর্ক। কিন্তু অলিম্পিকে তো পেলে কখনো অংশই নেননি। তাঁর সময়ে পেশাদার ফুটবলারদের অলিম্পিকে খেলা নিয়ে একটা নিষেধাজ্ঞা ছিল। তবু এবার নিজের দেশে অলিম্পিক হচ্ছে, পেলে কি আর সেটি থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারেন!

ব্রাজিল দলকে অনুপ্রাণিত করতে এবারও যথারীতি পেলে গীতিকার, সুরকার ও গায়কের ভূমিকায়। ‘এসপারেঙ্কা’ নামে একটা গান লিখে সেটি এরই মধ্যে রেকর্ড করে ফেলেছেন। টুইটারে সেই খবর দিয়ে আরও জানিয়েছেন, আগামী পরশু (১৫ জুলাই) গানটা প্রকাশ করবেন। শিল্পী পেলের ভক্তরা নিশ্চয়ই অপেক্ষায় আছেন। তবে আর মাত্র দুটি দিনই তো! ফক্স নিউজ লাতিনো।-প্রথম আলো






মন্তব্য চালু নেই