মেইন ম্যেনু

‘অসম্পূর্ণ’ ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেন উদ্বোধন শনিবার

প্রকল্প শুরুর প্রায় দশ বছর পর গুরুত্বপূর্ণ চারটি পয়েন্টের কাজ অসম্পূর্ণ রেখে আগামীকাল শনিবার উদ্বোধন হচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেন। পাঁচবার মেয়াদ বাড়ানোর পর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে চললেও এখনো গুরুত্বপূর্ণ তিনটি ওভারপাসের নির্মাণ শেষ হয়নি। তাই চার লেনের পুরো সুফল পাওয়া নিয়ে রয়েছে সংশয়।

শনিবার এ মেগা প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এ মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জ সেতু, কুমিল্লা রেলক্রসিং এবং চট্টগ্রাম রেলক্রসিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে যথাক্রমে ৭৯, ৮৪ এবং সাড়ে ৮৩ শতাংশ। ফেনী রেলক্রসিংয়ের মাত্র ৪০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

ফেনীর ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাসটির বিষয়ে প্রকল্প কর্মকর্তাদের দাবি, মূল কাজ শেষ হয়েছে। পর্যায়ক্রমে রোড মার্কিং, সাইন সিগনাল, ড্রেন, পার্শ্ব সড়ক, সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

কুমিল্লায় ৩৪৪ মিটার দীর্ঘ ওভারপাসটিতে দুই লেনের কাজ এখনো অসমাপ্ত। তাই ঢাকামুখী যানবাহন ওভারপাস ব্যবহার করতে পারলেও চট্টগ্রামমুখী যানবাহন ব্যবহার করছে পুরোনো মহাসড়ক।

২০০৬ সালে একনেকে অনুমোদনের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চার-লেনের কাজের সময়সীমা ছিল ২০১২ সালের জুন মাস। ব্যয় ধরা হয়েছিল প্রায় দুই হাজার ১৬৮ কোটি টাকা। তবে ভূমি অধিগ্রহণ পরিকল্পনা আর দরপত্রের প্রক্রিয়া শেষ করতেই লাগে ছয় বছর। মেয়াদের সঙ্গে ব্যয়ও বেড়েছে সাড়ে ১৬শ কোটি টাকা।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ফারুক জলিল, মূল সড়কের কাজ শেষ হয়েছে। যেগুলো বাকি আছে সেগুলো ওভারপাস। ফেনীর যে অংশটির কাজ বাকি সেটি অন্য প্রকল্প।






মন্তব্য চালু নেই