মেইন ম্যেনু

অসুস্থ স্ত্রীকে ডিভোর্স দেয়া মানা : হাইকোর্ট

অসুস্থ স্ত্রীকে কোনোভাবেই ডিভোর্স দেয়া যাবে না। এমনকি স্ত্রীর সম্মতি থাকলেও নয়। মানবিক এই রায় দিয়েছেন ভারতের উচ্চ আদালত।

বৃহস্পতিবার একটি ডিভোর্সের পিটিশন খারিজ করে দিয়ে এমওয়াই ইকবালের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ বলেন, ‘হিন্দু বিবাহ হল স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে এক পবিত্র সম্পর্ক স্থাপন। এক্ষেত্রে স্ত্রী তার স্বামীর ঘরে নবজন্ম নিয়ে নতুন জীবন শুরু করেন… একজন হিন্দু স্ত্রীর কাছে তার স্বামী ভগবানের মতো। তিনি শুধু জীবন এবং ভালোবাসাই শেয়ার করেন না, স্বামীর আনন্দ, দুঃখ, সমস্যা সবই ভাগ করে নেন এবং স্বামীর জীবন ও কর্মকাণ্ডের একটা অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে যান।’

সুতরাং স্ত্রীর কঠিন সময়ে স্বামীর তার পাশে থাকা উচিৎ বলে মত দিয়েছেন শীর্ষ আদালত।

যে পিটিশনের শুনানিতে এমন রায় এসেছে সেটি ছিল স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত স্ত্রীকে ডিভোর্স দেয়ার একটি আবেদন। স্বামী সাড়ে ১২ লাখ রুপি খোরপোষ দিয়ে বিচ্ছেদ চেয়েছিলেন। স্ত্রীও এতে সম্মতি দিয়েছিলেন।

কিন্তু আদালত পুরো বিষয়টি জেনে ওই আবেদন খারিজ করে দেন। স্ত্রীর চিকিত্‍‌সার জন্য স্বামীকে ৫ লাখ রুপি দেয়ারও নির্দেশ দেন। আদালত বলেছেন, স্ত্রী সুস্থ হয়ে উঠলে ফের এই মামলার শুনানি হবে।

এই রায়ের পাশাপাশি আদালত মনে করিয়ে দেন যে, বিবাহ আইন অনুযায়ী স্ত্রীর যাবতীয় যত্নআত্তির দায়িত্ব স্বামীরই। শুধু ভাত-কাপড়ের দায়িত্ব নেয়াই নয়, স্ত্রীকে সমস্ত সমস্যা থেকে বাঁচিয়ে সুস্থ ও সুরক্ষিত রাখা তার কর্তৃব্য।






মন্তব্য চালু নেই