মেইন ম্যেনু

অস্ট্রেলিয়ার আসা নিয়ে বিসিবিও শঙ্কিত

সারাদিন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। অস্ট্রেলিয়া আসছে কি না এ বিষয়টি জানতে সারাদিনই বিসিবির দিকে তাকিয়ে সারাদেশের ক্রিকেট সমর্থকরা। কিন্তু বিসিবি এ বিষয়ে পুরোদিন মুখে কুলুপ এঁটে থাকার পর অবশেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় গুলশানে নিজ বাসায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

তিনি সাংবাদিকদের কাছে বলেন, ‘আমরা নিরাপত্তার পুরো প্ল্যান তাদের সামনে দিয়েছি। বলেছি, ভিভিআইপি নিরাপত্তা, এমনকি চাইলে এর চেয়েও বেশি নিরাপত্তা দেয়া হবে। এসব আশ্বাস এবং রিপোর্ট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি দল দেশে ফিরে গেছে। সেখানে গিয়ে রিপোর্ট জমা দেয়ার পরই অস্ট্রেলিয়া সফরে আসবে কি আসবে না সে সম্পর্কে জানা যাবে। আপাতত এ জন্য আমাদের দু’তিনদিন অপেক্ষা করা লাগতে পারে।’

সোমবার সন্ধ্যায় কূটনৈতিক পাড়ায় ইতালি নাগরিক নিহত হওয়ার ঘটনায় বাংলাদেশে নিজ নিজ দেশের নাগরিকদের সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরার নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্য সরকার। একই সঙ্গে জঙ্গি গোষ্ঠি আইএস নাকি এই হত্যার দায় স্বীকার করেছে। এমন পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ আসছে, সফর বাতিল করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। এ প্রসঙ্গে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এ ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর আমরাও শঙ্কিত সিরিজটি অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে। অস্ট্রেলিয়া এখন কী সিদ্ধান্ত নেয় সে দিকেই তাকিয়ে আছি আমরা।’

অস্ট্রেলিয়া সিরিজ বাতিল করছে কি না, এ প্রসঙ্গে নাজমুল হাসান বলেন, ‘দেখুন, এ ব্যাপারে আমরা এখনও কিছু জানি না। আমাদেরকে অফিসিয়ালি কিছুই জানানো হয়নি। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের খবর তো আমরাও শুনছি। কিন্তু, আনুষ্ঠানিকভাবে কোন ঘোষণা না এলে এ ব্যাপারে তো কিছুই বলতে পারবো না।’

তবে, ইতালি নাগরিক নিহত হওয়ার সঙ্গে সিরিজ বাতিলের সম্ভাবনা তৈরী হওয়ার কোন সম্পর্ক নেই বলে জানান বিসিবি প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘সিরিজ বাতিল হওয়ার মতো কোন পরিস্থিতিই তৈরী হয়নি। এর আগেও তো আমরা ভারত, পাকিস্তান এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মত দলগুলোর বিপক্ষে সিরিজ আয়োজন করেছি। তাদেরকেও তখন ভিআইপি নিরাপত্তা দেয়া হয়েছিল। এবার আমরা বলেছি, এর চেয়েও বেশি নিরাপত্তা দেয়া হবে। বিশ্বকাপের সময় যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল তার চেয়েও বেশি। এমনকি তাদেরকে আমরা যে নিরাপত্তা প্ল্যান দিয়েছি, অতীতে এমন নিরাপত্তা অন্য কোন দলকে দেয়া হয়নি।’






মন্তব্য চালু নেই