মেইন ম্যেনু

অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এক কিশোরী গার্মেন্টস কর্মীকে (১৫) ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জামাল (২২) নামে এক সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে ফতুল্লার পাগলা শাহি মহল্লা এলাকা থেকে জামালকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি একই এলাকার মোবারক মিয়ার ছেলে ও কুতুবপুরের দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী মীর হোসেন মীরু বাহিনীর অন্যতম সদস্য।

এ ঘটনায় গার্মেন্টস কর্মীর বাবা বাদী হয়ে জামালের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজি এনামুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, পাগলা শাহি মহল্লার আল আকসার এক ব্যক্তির বাড়িতে ভাড়া থেকে হেমায়েত হাওলাদার রাজমিস্ত্রি কাজ করে সংসার চালান। স্ত্রী জালকড়ির একটি ঝুট মিলে চাকরি করেন এবং তার কিশোরী মেয়ে নন্দলালপুরের প্রাইম টেক্সটাইল মিলে চাকরি করেন।

তাদের মেয়ে কর্মস্থলে আসা যাওয়ার পথে জামাল নানাভাবে উত্ত্যক্ত করে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। এতে মেয়েটি রাজি না হওয়ায় গত ১৬ অক্টোবর বিকেলে জামাল তার ঘরে প্রবেশ করে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।

বিষয়টি কাউকে বললে পরিবারের সবাইকে বড় ধরনের ক্ষতি করার হুমকি দিয়ে চলে যান জামাল। ঘটনা জানাজানি হলে সোমবার রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেন মেয়েটির বাবা। পরে মঙ্গলবার সকালে জামালকে গ্রেফতার করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই