মেইন ম্যেনু

অ্যালোভেরার প্যাককে আরও কার্যকর করে তুলবে এই ৭টি উপাদান

রুপচর্চায় অ্যালোভেরার ব্যবহার হয়ে আসছে আদিকাল থেকে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি থেকে শুরু করে চুলের যত্নেও অ্যালোভেরা ব্যবহার হয়ে থাকে। কিন্তু অনেকেই বুঝতে পারেন না, অ্যালোভেরা জেলটি ব্যবহার করবেন কীভাবে? কিছু উপাদান রয়েছে যা অ্যালোভেরা জেলের সাথে মিশে এর কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে দেয় বহুগুণ। অ্যালোভেরার সাথে মেশাতে পারেন এমন কিছু উপাদান নিয়ে আজকের এই ফিচার।

১। শসা

অ্যালোভেরা জেলের সাথে শসার রস মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। শসার রস ত্বক হাইড্রেইড রাখবে। আর অ্যালোভেরা জেলে ত্বকের কালো দাগ দূর করে। এই প্যাকটি ত্বকের নমনীয়তা বৃদ্ধি করতে বেশ কার্যকর।

২। টমেটো

অ্যালোভেরা জেলের সাথে টমেটোর রস মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিতে পারেন। টমেটো প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে কাজ করবে। শুধু তাই নয় এটি ভাল ত্বক পরিষ্কারক।

৩। হলুদ

অ্যালোভেরা এবং হলুদের ফেসপ্যাক ত্বকের ব্রণ হওয়ার প্রবণতা দূর করে। হলুদের অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল উপাদান ত্বক থেকে ব্যাকটেরিয়া দূর করে দেয়। অ্যালোভেরা জেলের সাথে এক চিমটি হলুদ গুঁড়ো এবং মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করতে পারেন।

৪। চালের গুঁড়ো

অ্যালোভেরা জেল এবং চালের গুঁড়ো ভাল এক্সফলিয়েটের কাজ করে। এটি ত্বকের মৃত কোষ, ধুলাবালি ময়লা দূর করে। এটি ত্বকে একটি সতেজভাব নিয়ে আসে।

৫। পেঁপে

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে পেঁপে অ্যালোভেরা প্যাকটি ব্যবহার করা যেতে পারে। কয়েক টুকরো পাকা পেঁপে চটকে নিন। এরসাথে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

৬। লেবুর রস

লেবুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচিং হিসেবে কাজ করে। অ্যালোভেরা এবং লেবুর রস ত্বক পরিষ্কার করে, উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি এবং ত্বক নরম করে তোলে।

৭। কলা

কলা ত্বকের ঝুলে পরা রোধ করে। এটি ত্বক টাইট করতেও বেশ কার্যকর। একটি পাকা কলা চটকে অ্যালোভেরা জেলের সাথে মেশান। এই মিশ্রণটি প্যাক হিসেবে ব্যবহার করুন।






মন্তব্য চালু নেই