মেইন ম্যেনু

আইএমএফের ঋণ শোধ করতে পারেনি গ্রিস

ইন্টারন্যাশনাল মনিটারি ফান্ডের (আইএমএফ) কাছ থেকে নেওয়া ১.৬ বিলিয়ন ইউরো ঋণ পরিরোধ করতে পারেনি গ্রিস। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) গ্রিসের শর্ত মেনে নতুন করে অর্থসহযোগিতা দিতে অস্বীকার করায় ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার বেইল-আউটের শেষ দিনে ইইউ মন্ত্রীরা সময় বাড়াতে রাজি না হওয়ায় গভীর সংকটে পড়েছে গ্রিসের অর্থনীতি। ঋণ পরিশোধের সময়সীমা বাড়িয়ে নতুন ঋণ অনুমোদন দিয়ে অর্থনৈতিক ধস মোকাবিলা করা সম্পর্কিত সহযোগিতাকে বেইল-আউট বলা হয়। কিন্তু ইইউ ও গ্রিসের পাল্টাপাল্টি শর্তের কারণে শেষ পর্যন্ত বেইল-আউটের শেষ দিন ৩০ জুন পার হয়ে গেছে। যে কারণে আইএমএফের ঋণ শোধ করতে পারেনি দেশটি।

এদিকে ইইউ মন্ত্রীরা বলেছেন, আগামী দুই বছরের জন্য গ্রিসকে বেইল-আউটের সুবিধা দিতে বুধবার আবার আলোচনা করা হবে। ৫ জুলাইয়ের আগে বেইল-আউটে রাজি হলে গ্রিসের প্রস্তাবিত গণভোটের রায় ঘুরে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ঋণদাতাদের দেওয়া শর্ত মেনে গ্রিস ঋণ নেবে কি নেবে না- এ নিয়ে রোববার ‘হ্যাঁ, না’ ভোটের আয়োজন করেছে দেশটি। যদি না-ভোট বিজয়ী হয়, তবে ইউরোজোন থেকে হয়তো বেরিয়ে যেতে পারে গ্রিস।

অন্যদিকে ইইউপন্থি গ্রিকরা মঙ্গলবার এথেন্সে র‌্যালি করেছে। তাদের দাবি, ইইউর শর্ত মেনে নিয়ে তাদের সরকার বেইল-আউট চুক্তি করুক। কিন্তু সরকারপন্থিরা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছে, ঋণদাতাদের পরামর্শমতো এবং তাদের দেওয়া শর্ত মেনে ঋণ নেবে না সরকার। প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সিস সিপরাস এই অবস্থানে অনড় রয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই