মেইন ম্যেনু

আইএস জড়িত নয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি

ইতালির নাগরিক হত্যাকাণ্ডে নিজেদের জড়িত থাকার বিষয়ে আইএস নিজস্ব ওয়েবসাইটে কোনো স্বীকারক্তি দেয়নি বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বুধবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব এ. কে. মফিজুল হকের সই করা বিজ্ঞপ্তিটিতে বলা হয়েছে, ইতালীয় নাগরিক সিজার তাভেল্লা হত্যাকাণ্ডের পর সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ নামক যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন পর্যবেক্ষণ ওয়েবসাইট জানিয়েছিল আইএস ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। কিন্তু বাংলাদেশ পুলিশের গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তে আইএস এর নিজস্ব ওয়েবসাইটে এ ধরনের কোনো ঘোষণা পাওয়া যায়নি।

এর আগে বুধবার সচিবালয়ে স্বররাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে এটা আইএসের কাজ নয় কর্ম নয়। ইতালিও ঘটনায় আইএসের সম্পৃক্ততার কোনো আলামত দেখছে না।’ ঢাকায় নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূত মারিয়ো পালমার সঙ্গে সাক্ষাতের পর তিনি এ কথা বলেন।

গত সোমবার সন্ধ্যায় কূটনীতিক পাড়া গুলশানে তাভেল্লাকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। জঙ্গি হামলার হুমকির কথা জানিয়ে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর পিছিয়ে দেয়ার দুই দিনের মাথায় এই হত্যাকাণ্ড ঘটে। এরপর যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা বাংলাদেশে তাদের নাগরিকদের চলাফেরায় সতর্কতা জারি করে।

তাভেল্লা আইসিসিও কো-অপারেশন নামে একটি সংস্থার খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মসূচির প্রকল্প ব্যবস্থাপক ছিলেন।

তদন্তের ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘বৈঠকে উপস্থিত ইতালির সাংবাদিকদের আমরা জানিয়েছি এদেশে আইএসের অস্তিত্ব নেই। যে এলাকায় গঠনা ঘটেছে সেখানকার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। সন্ধ্যা সোয়া ৬টা থেকে সাড়ে ৬টার সময় ঘটনা ঘটায় ভিডিও ফুটেজগুলো স্পষ্ট নয়। সিটি করপোরেশনের সব বাতিও জ্বালানো ছিল না।’

বিদেশি নাগরিকদের চলাচলে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সতর্কতা জারি দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী । তিনি বলেন, ‘দূতাবাসে রেড অ্যালার্ট জারি মতো পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি।’






মন্তব্য চালু নেই