মেইন ম্যেনু

আইএস দমনে নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব পাস

সিরিয়া ও ইরাকে চরমপন্থি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে পরিচালিত অভিযান ‘চার গুণ’ জোরদার করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মতভাবে একটি খসড়া প্রস্তাব পাস হয়েছে। শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য ফ্রান্স এ প্রস্তাব উত্থাপন করেছিল।

গত ১৩ নভেম্বর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের ছয়টি স্থানে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। এতে ১২৯ জন নিহত হয়। ঘটনার পরদিন অর্থাৎ শনিবার আইএস এ হামলার দায় স্বীকার করে। এরপরই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ আইএসের বিরুদ্ধে ‘নির্মম প্রতিশোধের’ ঘোষণা দেন।

শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ‘প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ’ নেওয়ার জন্য একটি খসড়া প্রস্তাব উত্থাপন করে ফ্রান্স। নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী ও অস্থায়ী মিলিয়ে ১৫ সদস্য রাষ্ট্রের সর্বসম্মতিতে প্রস্তাবটি পাস হয়।

খসড়া প্রস্তাবে বলা হয়, দ্য ইসলামিক স্টেট ইন ইরাক অ্যান্ড লেভান্ট আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার প্রতি বৈশ্বিক ও মারাত্মক হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।

যেসব রাষ্ট্রের আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সক্ষমতা রয়েছে তাদের হামলায় অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে খসড়ায় বলা হয়, ‘যেসব সদস্যরাষ্ট্রের আইএস নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেওয়ার সামর্থ্য রয়েছে, তাদের অংশ নেওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে।’

এতে আইএসে যোগ দেওয়ার জন্য যেসব বিদেশি সিরিয়া ও ইরাকে যাওয়ার চেষ্টা করছে তাদের নিয়ন্ত্রণ এবং সন্ত্রাসবাদের অর্থায়ন বন্ধের বিষয়েও আহ্বান জানানো হয়।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন ফ্রান্সের এই খসড়া প্রস্তাবকে ‘একটি গুরুত্বপূর্ণ’ মুহূর্ত বলে মন্তব্য করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আইএসের বিরুদ্ধে বিশ্ব একজোট হয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য একত্র হয়েছে, যা প্রতিটি দেশ ও ধর্মের লোকদের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।’






মন্তব্য চালু নেই