মেইন ম্যেনু

আইফোন হ্যাক করায় বিব্রত অ্যাপল!

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) হেফাজতে আইফোন ৫সির আগামীকালের শুনানীর ব্যাপারে জানতে চেয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র সরকার অ্যাপলের কাছে ফোনটির সিকিউরিটি উম্মুক্ত করার ব্যাপারে জানতে চেয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে রাষ্ট্র অন্য একটি দলের সহযোগিতা পেয়েছিল ফোনটি সম্পর্কে জানতে। অ্যাপল আদালতের কাছে জানতে চেয়েছে এই দলটি কাদের এবং তারা ফোনটি আনলক করার জন্য কি চেষ্টা করেছে?

আজ দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে (যুক্তরাষ্ট্রের সময়) অ্যাপল সরকারের শুনানীর ব্যাপারে খারিজ হওয়ার সিদ্ধান্ত জানতে পেরেছে। বিজ্ঞ আদালত এই মামলাটি খারিজ করেন কিন্তু অ্যাপলকে এই মর্মে নির্দেশনা দেন, অ্যাপল যেন এফ বি আইকে স্যান বার্নারডিনোতে ঘটে যাওয়া হত্যাকান্ডের হোতা সাইয়েদ রিজওয়ানের আইফোনের ব্যাপারে তথ্য প্রদান করে। এই পয়েন্ট থেকে সুস্পষ্টভাবে এটা জানা যায় যে প্রতিষ্ঠানটি কোন আইনের আওতায় ফোন সম্পর্কে এফবিআইকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে বাধ্য নয়।

বিচার বিভাগ একটি অপরিচিত তৃতীয় পক্ষকে ব্যবহার করে ফোনের ডাটা সম্পর্কে জানতে। সরকার এই পক্ষের নাম প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানায় এবং অ্যাপল বলে এই পক্ষ সম্পর্কে তাদের কোন ধারণা নেই ও তারা মূলত কি করেছে এই ব্যাপারটিও অজ্ঞাত। বিচার বিভাগ যদি এই ব্যাপারে কোন মামলা করতে চায় সেক্ষেত্রে অবশ্যই পুরোপুরি তথ্য প্রকাশ করতে হবে।

অ্যাপলের আইনজীবী এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কারা এই তথ্যগুলো জানার জন্য চেষ্টা করেছে সে ব্যাপারে তারা সরকারের কাছে জানতে চেয়েছেন। এই মামলাকে যদি সচল রাখতে হয় তাহলে সরকারকে এক্ষেত্রে স্বচ্ছতা দেখাতে হবে। যা এখন পর্যন্ত হয়নি।

তিনি আরও বলেন, এই পয়েন্টে এটি এখন অসম্ভব সরকারের জন্য এই মামলার যুক্তিতর্কে এটা প্রমাণ করা যে অ্যাপল সিকিউরিটি প্রদানের ক্ষেত্রে কোন গড়িমসি করেছে। যদি বিচার বিভাগ এই মামলাকে খারিজ করে দেন তাহলে অ্যাপলের কোন আইনগত অধিকার নেই তথ্যগুলো সম্পর্কে জানার।

যদিও এফবিআই আইফোন ৫সি সম্পর্কে কি তথ্য পেল, তা প্রকাশ করে নি।






মন্তব্য চালু নেই