মেইন ম্যেনু

আইসিসি’র বিতর্কিত সিদ্ধান্তে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

বিশ্বের অন্যতম ফার্ষ্ট বোলার তাসকিন আহমেদ ও ঘূর্ণি জাদুকর আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রে অবৈধ ঘোষনা করে নিষিদ্ধ করায় আইসিসি’র প্রতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষুদ্ধ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম-বোয়াফ।

রবিবার (২০ মার্চ) সকাল ১১টার সময় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘তিন মোড়লের ক্রিকেট নোংরা রাজনীতি প্রতিহত ও আইসিসি’র ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়াতে ক্রিকেট ভক্তদের এগিয়ে আসার আহবান’ জানিয়ে আইসিসি’র বিতর্কিত সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন বোয়াফ নেতৃবৃন্দসহ ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থক।

সমাবেশের সভাপতি ও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা কবীর চৌধুরী তন্ময় বলেন, ২০১৫ অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মেলবোর্নে আম্পায়ারদের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে বাংলাদেশ ক্রিকেটকে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র শুরু করেছিল, তা তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশনকে পরিকল্পিত ভাবে অবৈধ ঘোষনা করে নিষিদ্ধের মধ্য দিয়ে সে ষড়যন্ত্র ও ক্রিকেট নোংরা রাজনীতি অব্যাহত রেখেছে আইসিসি; যা বিশ্বের কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্তদের সাথে বাংলাদেশের ১৬ কোটি ক্রিকেটপ্রেমীও মর্মাহত, লজ্জিত।

আইসিসি’র তীব্র সমালোচনা করে তিঁনি আরো বলেন, শুধু আম্পায়ার রড টাকার ও ম্যাচ রেফারি অ্যান্ডি পিক্রফটের ক্রিকেট অভিজ্ঞতা, গ্রহণযোগ্যতা ও নিরপেক্ষতা প্রশ্নবিদ্ধ নয়, স্বয়ং আইসিসি আজ বিশ্বের কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্ত-অনুরাগীদের কাছে বিতর্কিত, পক্ষপাততুষ্ট ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগে জর্জরিত; যা বোলিং অ্যাকশন সম্পর্কিত আইসিসির আইনের ২.২.৬ ধারাকে অবজ্ঞা করে তাসকিনকে নিষিদ্ধ করায় প্রতীয়মান।

আইসিসি তার বিতর্কিত সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার ও অগ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের বহিঃষ্কারের পাশাপাশি, বিশ্ব ক্রিকেটকে সময় উপযোগী, নিরপক্ষ ও সকল দলের সমান অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষে সকল বিতর্কের উর্ধে উঠে কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকদের নান্দনিক ও শৈল্পীক ক্রিকেট খেলা উপহার দেওয়ার দাবি জানান সমাবেশ থেকে।

উক্ত বিক্ষুদ্ধ সামাবেশে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, উপদেষ্ঠা মোজাম্মেল হক, সংগঠনের সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান, কাজী আরেফ ফাউন্ডেশনের সভাপতি কাজী মাসনুদ আহমেদ, সাজ্জাদ হোসেন সজীব, প্রকৌশলী রেদওয়ান সিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুল্লাহ মেজবাহ, ইকরামুল হক, সৈয়দ রাজিব আহমেদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রাকিব, ডেবিট হালদার লোক শক্তি পার্টির সভাপতি সাইখুল ইসলাম টিটু প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই