মেইন ম্যেনু

‘আগামী বাজেট হবে প্রায় চার লাখ কোটি টাকার’

আগামী ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাজেটের আকার হতে পারে তিন লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকা। তবে এটি এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

সোমবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত জাতীয় বাজেট সংক্রান্ত জাতীয় কো-অর্ডিনেশন কাউন্সিলের মিটিং শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেট বাস্তবায়ন অত্যন্ত সন্তোষজনক। রাজস্ব আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হচ্ছে। গত বছরের এই সময়ের তুলনায় চলতি বছরের এই সময়ে ২২ শতাংশ বেশি রাজস্ব আহরিত হয়েছে। তবে কম্পট্রোলার অডিটর জেনারেল (সিএজি) ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)এর হিসাবের মধ্যে ১০ হাজার কোটি টাকার গড়মিল আছে। সেটি সমাধানে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার সঞ্চয়পত্র বিক্রি বেশি হয়েছে। এ কারণে ব্যাংক থেকে আমাদের কোনও টাকা ধার করতে হয়নি। সেক্ষেত্রে সঞ্চয়পত্রের সুদ বেশি দিতে হচ্ছে। তবে সঞ্চয়পত্রের এ সুদের হার সমন্বয় করা হবে।’

রেমিটেন্স প্রবাহ কমেনি দাবি করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘রেমিটেন্স আসছে, তবে কিছু হুন্ডির মাধ্যমে আসায় তা হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে না। এছাড়া, বিদেশে কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের বেতনও কিছুটা কমেছে। তাই দেখা যাচ্ছে, রেমিটেন্স কম, তবে এটা তেমন কম না।’
উল্লেখ্য, চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য তিন লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকার জাতীয় বাজেট পাস করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই