মেইন ম্যেনু

আজও সড়কে ঝরলো ২১ প্রাণ

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। আজ শুক্রবার রাজধানীসহ সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ২১জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে গাজীপুরে ও মাদারীপুরে পাঁচজন করে ১০জন, মির্জাপুরে দুইজন মারা গেছেন। আর রাজধানীতে পৃথক তিন স্থানে তিনজন মারা গেছেন। গতকালও দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩০ জনের বেশি নিহত হয়েছেন।

গাজীপুর প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার সকাল সাতটার দিকে জেলার নওজোর কড্ডা এলাকায় কাভার্ড ভ্যান ও লেগুনার সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো পাঁচজন।

নিহতরা হলেন, লেগুনার চালক সাইদুর রহমান (২০), গাজীপুর শহরের ভোগড়া বাইপাস সড়ক এলাকার তমির হোসেনের স্ত্রী মনি (২৫), পটুয়াখালীর গলাচিপা থানার ছোট শিবা এলাকার সোহেল (৩০) এবং মৌলভীবাজারের বড়লেখা এলাকার সেলিনা আক্তার (৩০)। নিহত আরেকজনের নাম জানা যায়নি। তিনি চালকের সহকারী ছিলেন। আহতরাও সবাই লেগুনার আরোহী ছিলেন।

সালনা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাহার আলম জানান, সকালে ঢাকাগামী পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে বিপরীতগামী লেগুনার সংঘর্ষ হয়। এ সময় লেগুনাটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলে চালকসহ তিনজন নিহত হন। বাকী দুইজর হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান।

মাদারীপুর প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে মাদারীপুরের কালকিনির পাথুরিয়া পার এলাকায় বাস ও মাইক্রোর সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো আটজন।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু জানান, বাসটি মাদারীপুর থেকে বরিশাল যাচ্ছিল। অপরদিকে মাইক্রোবাসটি যাচ্ছিল বরিশাল থেকে কাওড়াকান্দিতে। পথিমধ্যে পাথুরিয়া পারে এলে দুই বাহনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

মির্জাপুর প্রতিনিধি জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে এগারোটার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নারীসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন গাইবান্ধার জেলার শাহনুর বেগম (৩০) ও রোকনুজ্জামান (২৫)। আহতদের উদ্ধার করে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছেন, গাইবান্ধা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাসটি মহাসড়কের সোহাগপাড়ায় পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। আশপাশের লোকজন ও হাইওয়ে পুলিশ এসে আহতদের উদ্ধার করে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে ভোরে কুমুদিনী হাসপাতালে শাহানুর ও রোকনুজ্জামান মারা যান।

এ ব্যাপারে মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ূন কবীর বলেন, নিহতদের লাশ আইনী প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এছাড়া বাসচাপায় সিলেটের বিশ্বনাথে মনিরুল ইসলাম (৫) নামে এক শিশু, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বেগম (৪০) নামে এক নারী, বরিশালের গৌরনদীতে নাসির উদ্দিন হাওলাদার (৩০) নামে মোটরসাইকেলের এক আরোহী ও কাঁচপুর ব্রিজে মুজিবর রহমান (৫৩) নামে আরো এক মোটরসাইকেল আরোহী মারা গেছেন। নীলফামারীতে ট্রাক্টর উল্টে চালক আইয়ুব আলী (২৭) ও বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় একটি মাইক্রোবাস ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে মোস্তাফিজুর রহমান বুলু (৫০) নামে এক পথচারী মারা গেছেন।

রাজধানীতেও আজ বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এরা হলেন, শেওড়াপাড়া এলাকায় অজ্ঞাতনামা (২৫) এক যুবক, খিলক্ষেতে নাসরিন আক্তার (১৯) নামে এক গার্মেন্টসকর্মী ও কারওয়ানবাজারে সোহেল রানা (৩০) নামের এক পুলিশ সদস্য।






মন্তব্য চালু নেই