মেইন ম্যেনু

আজ কঠিন চ্যালেঞ্জে নামছে বাংলাদেশ

৩ জুলাই, ফতুল্লা প্রস্তুতি ম্যাচ। বিসিবি একাদশ ১৮ ওভারে ৯৯ রানে অল আউট। এই টার্গেটে পৌঁছাতে দক্ষিণ আফ্রিকার লাগলো মাত্র ১২ ওভার। একটা উইকেটেও জুটলো না স্বাগতিক বোলারদের। এই ম্যাচে একটা বার্তা দিয়ে রাখলো প্রোটিয়ারা এবং সেটা হলো, তারা পাকিস্তান কিংবা ভারতের মতো নয়। হোক না প্রচণ্ড গরম, কিছুটা প্রতিকূল কন্ডিশন, টাইগারদের বিপক্ষে তারা পুরোপুরি প্রস্তুত। আজ মিরপুরে দুই ম্যাচের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আমাদেরই ফেভারিট বলতে হবে, ফতুল্লা প্রস্তুত ম্যাচে এই ঘোষনাটাই যেন দিয়ে রেখেছে ডু প্লেসিসের দল। প্রোটিয়াদের চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত টাইগাররাও।

২০১৩ সালে বিপিএল বন্ধ হওয়ার পর টি-টোয়েন্টি ফরমেটে খুব বেশী ম্যাচ খেলা হচ্ছে না টাইগারদের। তাই ২০ ওভার ম্যাচে অভিজ্ঞতার ঘাটতির কথা বারবার বলছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা। শনিবার ম্যাচ পুর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনেও ম্যাচ কম খেলার আক্ষেপ তার কন্ঠে।

যদিও দেশের মাটিতে কিছু দিন আগে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে উড়ন্ত জয় পেয়েছিল টাইগাররা। এই জয়টাই প্রেরণা হিসেবে সামনে রাখছে মাশরাফির দল।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২০ ওভার ম্যাচে কোন সুখস্মৃতি নেই। দুই ম্যাচেই হারের অভিজ্ঞতা।কিন্তু অতীতে কি হয়েছে না হয়েছে তা নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় নেই যেন বাংলাদেশ অধিনায়কের। গত ক’য়েক মাস ধরে যে ভয়হীন ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ, সেটাই ধরে রাখতে চান মাশরাফি। সঙ্গে আছে আত্মবিশ্বাস।

এ ম্যাচে দুই পেসার এবং তিন স্পিনার নিয়ে মাঠে নামবে স্বাগতিকরা। মাশরাফির সঙ্গে পেস আক্রমণের সঙ্গী মুস্তাফিজুর রহমান। তিন স্পিনার হলেন, সাকিব আল হাসান, আরাফাত সানি এবং সোহাগ গাজী। বোলিং অ্যাকশন শুধরে অনেক দির পর জাতীয় দলে খেলতে যাচ্ছেন গাজী। প্রয়োজনের সময় তিনি ব্যাটও করতে পারেন বেশ।

অন্য দিকে তারুণ্য নির্ভর দল হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডেইল স্টেইন, মর্নে মরকেল, ফিল্যান্ডার এবং ইমরান তাহিরের মতো অভিজ্ঞরা নেই দলে। কিন্তু পুস্তুতি ম্যাচে তরুণরা ভালো করে দেখিয়ে দেন, আর্ন্তজাতিক ক্রিকেটের জন্যও তারা পুরোপুরি প্রস্তুত।

বাংলাদেশের জন্য চিন্তার নাম এবিডি ভিলিয়ার্স। তিন ফরমেটের ক্রিকেটেই তিনি প্রায় সামান পারদর্শী। তবে সীমিত ওভার ফরমেটে রীতিমত ভয়ঙ্কর। এবিকে জলদি ফেরাতে না পারলে তা মহাবিপদের কারণ। তাকে নিয়ে চিন্তার ভাজ বাংলাদেশ কোচের কপালে।

উইকেট নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। ব্যাটিং সহায়ক, স্পিন বান্ধব। তবে ফাস্ট বোলারদের জন্যও কিছু একটা আছে। আসলে ২০ ওভার ম্যাচ তো ব্যাটসম্যানদের খেলা। এখানে ব্যাটসম্যানরই রাজা।

এই আষাঢ় মাসেও আবহাওয়ার রিপোর্টে সুখবর আছে। আকাশে হাল্কা পাতলা মেঘ থাকবে বটে, তবে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা সন্ধ্যার পর। মানে ততক্ষণে ম্যাচ শেষ।






মন্তব্য চালু নেই