মেইন ম্যেনু

আজ কি করবেন কোহলি ও আনুশকা?

আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। প্রেমিক-প্রেমিকার মনে বসন্তের বাতাস। কিন্তু এই বসন্তের বাতাস কি পৌঁছেছে বিরাট কোহলির মনে? তবে আজ তিনি কী করবেন?

একটা সময় তার প্রেমিকা আনুশকা শর্মার তরফ থেকে কি আসবে কোনও ফোন? ভালবাসার দু’কলি কি বিরাটের কানে কানে বলবেন আনুশকা? বিরাটের অভিমান ভাঙাবেন সুন্দরী এই নায়িকা? উলটোটাও কি হতে পারে?

ভ্যালেনটাইন্স ডে। আজ শুধু প্রেমিক-প্রেমিকার দিন। ভালবাসা খুঁজে পাওয়ার দিন। আর এই দিনেই তো তুমি কাছে নাই! বিরাটের পাশে নেই আনুশকা। আনুশকার কাছ থেকে দূরে চলে গিয়েছেন বিরাট কোহলি। ভ্যালেনটাইন্স ডে-র দিনকয়েক আগেই ব্রেক আপ হয়ে যায় দু’তারকার। তাদের পথটাও বেঁকে গিয়েছে। ভালবাসার দিনে কোহলি আর আনুশকা এখন সিঙ্গল।

অথচ আজকের দিনটা তো রাঙিয়ে দিতে পারতেন তারা। কাউকে কিছু জানতে না-দিয়ে আনুশকা হয়তো পৌঁছে যেতেন বিশাখাপত্তনমে। এখানেই তো ভারত ও শ্রীলঙ্কার তৃতীয় টি টোয়েন্টি ম্যাচ হবে। বিরাট মাঠে রানের ফল্গুধারা ছোটাবেন। গ্যালারিতে বসে আনুশকা বিরাট-ব্যাটিং দেখবেন। উদ্বিগ্ন হবেন। হঠাৎই হাততালি দিয়ে উঠবেন। বিরাটও ঝোড়ো পঞ্চাশ বা একশোর পরে আনুশকাকে উদ্দেশ্য করে ব্যাট তুলবেন।

এমন দৃশ্য তো বিশ্বকাপেও দেখা গিয়েছে। আনুশকার উপস্থিতির জন্য বিরাটের মনঃসংযোগে বিঘ্ন ঘটেছে। এমন অপবাদও শুনতে হয়েছে আনুশকাকে। একালের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকার দিকে ধেয়ে এসেছে সমালোচনা। বিশ্বকাপ থেকে ভারতের ছিটকে যাওয়ার নেপথ্যে রয়েছেন আনুশকা শর্মা, এমন বক্তব্যও শোনা গিয়েছিল।

তবে বিরাটের দিকে তাকিয়ে সব নাকি সহ্য করে গিয়েছেন আনুশকা। পরে কলকাতায় বিস্ফোরণ ঘটান কোহলি। মিডিয়াকে একহাত নিয়েই ছাড়েন তিনি। বুঝিয়ে দেন, আনুশকার অসম্মান তিনি সহ্য করবেন না। সেই সম্পর্ক নষ্ট হয়ে গেল।






মন্তব্য চালু নেই