মেইন ম্যেনু

আজ থেকে পাওয়া যাবে নতুন নোট

ঈদুল আজহা উপলক্ষে আজ (বৃহস্পতিবার) থেকে নতুন টাকার নোট বিনিময় শুরু হবে। নোট বিনিময়ের এ কার্যক্রম চলবে ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। রাজধানীতে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসের পাশাপাশি বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের ১৪টি শাখায় নতুন নোট পাওয়া যাবে।

জানা গেছে, কোরবানির পশুসহ অন্যান্য কেনাকাটায় বাড়তি খরচের কথা মাথায় রেখে এবার নতুন-পুরনো মিলে ৩০ হাজার কোটি টাকার নোট সরবরাহের ব্যবস্থা রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর মধ্যে একদম নতুন নোট রয়েছে ১৫ হাজার কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, মৌসুমী ব্যবসায়ী ও দালাল রুখতে এবারো বাংলাদেশ ব্যাংকের মাতিঝিল অফিসে নতুন টাকা বিনিময়ে ডিজিটাল ডিসপ্লের ব্যবহার করা হবে। এই পদ্ধতিতে আঙুলের ছাপ নেয়ার পর কূপনের সিরিয়ালে টাকা সরবরাহ করা হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসের পাশাপাশি সব বিভাগীয় শাখা অফিসেও নতুন টাকা বিনিময়ের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। মতিঝিল অফিসে দুটি কাউন্টার এবং বিভাগীয় শাখা অফিসে একটি কাউন্টার খোলা হবে। পাশাপাশি রাজধানিতে ১৪টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের শাখায় নতুন নোট বিনিময়ের নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এবার একজনে ছোট মূল্যমানের সর্বোচ্চ ৮ হাজার টাকার নোট বদলিয়ে নিতে পারবেন। আর বড় মূল্যমানের নোট নিতে পারবেন সর্বোচ্চ এক লাখ ৬০ হাজার টাকা। ছোট মূল্যমানের নোটের মধ্যে ৫০ টাকার এক প্যাকেট বা ৫ হাজার টাকা, ২০ টাকার এক প্যাকেট বা দুই হাজার টাকা ও ১০ টাকার এক প্যাকেট বা এক হাজার টাকা নেয়ার সুযোগ রাখা হচ্ছে।

এছাড়া বড় মূল্যমানের নোটের মধ্যে ১০০ টাকার এক প্যাকেট বা ১০ হাজার টাকা, ৫০০ টাকার এক প্যাকেট বা ৫০ হাজার টাকা ও এক হাজার টাকার এক প্যাকট বা এক লাখ টাকা নেয়ার সুযোগ পাবেন নতুন নোট প্রত্যাশীরা। তবে চাহিদা কম থাকায় এবার ২ ও ৫ টাকার নোট বিনিময়ের সুযোগ রাখা হচ্ছে না।

রাজধানীর যেসব শাখায় নতুন নোট পাওয়া যাবে সেগুলো হলো ন্যাশনাল ব্যাংকের যাত্রাবাড়ি শাখা, অগ্রণী ব্যাংকের এলিফ্যান্ট রোড শাখা, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের বসুন্ধরা সিটি (পান্থপথ) শাখা, ব্যাংক এশিয়ার ধানমন্ডি শাখা, ঢাকা ব্যাংকের উত্তরা শাখা, জনতা ব্যাংকের আবদুল গণি রোড শাখা, দি সিটি ব্যাংকের মিরপুর শাখা ও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের মালিবাগ শাখা।

এবার যেসব শাখায় বড় মূল্যমানের নোট বিনিময় হবে সেগুলো হলো মার্কেন্টাইল ব্যাংকের বনানী শাখা, সোনালী ব্যাংকের রমনা শাখা, আইএফআইসি ব্যাংকের গুলশান শাখা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের মোহাম্মদপুর শাখা ও রূপালী ব্যাংকের মহাখালী শাখা।






মন্তব্য চালু নেই