মেইন ম্যেনু

আট বছরে সেই মুন্নি, কী উপহার দিবেন সাল্লু!

শুধু শিশু চরিত্র বলেই নয়, বরং নিজের প্রথম ছবিতেই দুর্দান্ত অভিনয়ের জন্যও এখন বলিউডে তুমুল আলোচিত ছোট্ট হারশালি মালহোত্রা! গত বছরে সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খানের সঙ্গে পাকিস্তানি বোবা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করে কাঁদিয়েছেন সব শ্রেণির দর্শককে। এরপর আর কোনো সিনেমায় তাকে দেখা না গেলেও এরইমধ্যে ‘সুপারস্টার’-এর মর্যাদায় আসিন হারশালি! আর এই ছোট্ট হারশালি পা রাখলেন আট বছরে। ৩ জুন শুক্রবার ছোট্ট হারশালি আট বছর পূর্ণ করলেন। আর এই দিনে ভাইজান খ্যাত সালমান খান হারশালিকে কী উপহার পাঠান, তাই যেন আজ খবরে পরিনত!

২০০৮ সালের ৩ জুন বাবা বিপুল মালহোত্রা ও মা কাজল মালহোত্রার ঘরে মুম্বাইয়ে জন্ম নেন হারশালি। ভাই হার্দিক মালহোত্রাকে নিয়ে মোট চারজনের ছোট্ট সংসার তাদের। হারশালি বর্তমানে সেভেন স্কয়ার একাডেমি স্কুলে পড়াশোনা করছেন। আর এই স্কুলে পড়াকালিন সময়েই ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য অডিশনের খবর পেয়ে মা কাজল সব ব্যবস্থা করেন।

মুন্নির চরিত্রটি পেতে হারশালিকে রীতিমত অগ্নি পরীক্ষায় দিতে হয়েছে। অন্তত পাঁচ হাজার শিশু অভিনেত্রীদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় অডিশন দিয়ে ভাইজানের সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ পায় হারশালি। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির আগে খুব একটা অভিনয়ের অভিজ্ঞতা ছিল না তার। ২০১৪ সালে সবে মাত্র কবুল হ্যায় এবং লট আও তৃষা সিরিয়ালে কাজ করেছেন। তাছাড়া ফেয়ার এন্ড লাভভি, পেয়ার্স, এইচডি এফসি ব্যাঙ্ক এবং হরলিক্সের বিজ্ঞাপনে দেখা গেছে তাকে।

কিন্তু এত অল্প বয়সে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবিতে তুখোর একটি চরিত্রে অভিনয় করে রীতিমত সুপারস্টারের সমমর্যাদায় চলে গেছেন হারশালি। ছবিটিতে অসাধারণ অভিনয়, নিষ্পাপ হাসি আর মনকাড়া চাহনির জন্য ভারতীয় অগণিত দর্শকের মনে জায়গা করে নেন তিনি।ছবিতে একজন পাকিস্তানি বোবা শিশুর চরিত্রে প্রথমবার অভিনয় করেই ভারতীয় ছবির দর্শকদের আবেগে কাঁদিয়েছেন ছোট্ট মেয়ে হারশালি মালহোত্রা। প্রশংসা কুড়িয়েছেন দেশে বিদেশে।

বজরঙ্গি ভাইজান সিনেমা করতে গিয়ে সুপারস্টার সালমানের সঙ্গে দারুন সম্পর্ক হয়ে গেছে হারশালির। সে সালমানকে মামা বলে ডাকে। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারেও সেই মামার কথা বলেছেন হারশালি। এমনকি তার সঙ্গে আবারও কোনো সিনেমায় অভিনয়ের জন্য মুখিয়ে আছেন বলেও জানা গেছে। শুধু সালমানের সঙ্গে নয়, ক্যাটরিনার সঙ্গে অভিনয়ের ইচ্ছে পোষণ করেছেন সেই মুন্নী! তবে বড় হয়ে সালমানের মতোই সুপারস্টার হওয়ার আশা করেন আট বছর পূর্ণ করা হারশালি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে হারশালি বলেন, আমি সালমান মামার মত সুপারস্টার হতে চাই। অভিনয় আর নাচে আমি অনেক কাজ করবো।

জীবনের প্রথম সিনেমায় অভিনয় করে শুধু প্রশংসাই নয়, বরং সেই প্রশংসার হাতেনাতে স্বীকৃতি ভাগিয়ে নিয়েছেন হারশালি। গত বছরে ছবিটি মুক্তির পর ভারতে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ফেস্টিভাল ও অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে পুরস্কৃত হয়েছেন তিনি। ‘স্টার স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’-এর সেরা শিশু অভিনেতার পুরস্কার অর্জন ছাড়াও ইন্ডিয়ান টেলিভিশন একাডেমি ( আইটিএ) সম্প্রতি ছোট্ট হারশালিকে তার অভিনয় দক্ষতার জন্য পুরস্কৃত করেছে। ভারতে তারকা সমৃদ্ধ ‘জি সিনে অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ ফিল্ম ফেস্টিভালে সেরা উঠতি অভিনেত্রী হিসেবে পুরস্কার অর্জন করেছেন হারশালি মালহোত্রা।






মন্তব্য চালু নেই