মেইন ম্যেনু

আত্মবিশ্বাসী কোচ হাথুরুসিংহে

প্রায় এক বছর ধরে ওয়ানডে ক্রিকেটে দুর্দান্ত পারফর্ম করে চলেছে বাংলাদেশ দল। ভর-ডরহীন ক্রিকেট খেলছে টাইগাররা। পাকিস্তান এবং ভারত বধের পর বাংলাদেশের সামনে এবার শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকা। উপমহাদেশের ক্রিকেটের দুই পরাশক্তিকে হারানোর পর মাশরাফি-সাকিবরা আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে বলে মনে করছেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। তাই এবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর সেরা সময় বলে জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল যখন ফতুল্লায় বিসিবি একাদশের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছিল, সেই সময় মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরাছিলেন মুশফিক-মাশরাফিরা। আগামী ৫ জুলাই শুরু হবে দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজের প্রথমটি। এ ম্যাচের জন্যই স্বাগতিকদের তৈরি হওয়া। শুক্রবার সকাল ১১টা থেকে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন শুরু হয়ে সেটি চলে দুপুর ১টা পর্যন্ত।

এরপর সংবাদ সম্মেলনে আসেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। পাকিস্তান এবং ভারতকে হারানোর পর দর্শক এবং সমর্থকদের প্রত্যাশার পারদটা আরও চওড়া হয়েছে। এবার শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও টাইগারদের জয় দেখতে চান তারা।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্স খুব একটা ভালো নয়। কিন্তু পাকিস্তান এবং ভারতকে হারানোর পর স্বাগতিক কোচ এখন অনেক আশাবাদী। এ বিষয়ে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বলেন, ‘গত দুইটা সিরিজ কিছুটা হলেও আমাদের উৎসাহ যোগাচ্ছে। তাই আমি মনে করি এটা বাংলাদেশের জন্য উদ্দীপ্ত হওয়ার সেরা সময়। আমি আরও বলতে চাই, জয়টা সব সময় খুবই ভালো একটা ব্যাপার। তবে আমরা যেভাবে খেলছি, সেটাই বেশি উৎসাহব্যঞ্জক হয়ে উঠেছে আমাদের জন্য।’
আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠিত হবে টি-২০ বিশ্বকাপ। তবে আগামী বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ নয়, বাংলাদেশের কোচের বর্তমান লক্ষ্য প্রোটিয়াদের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজ।

এ বিষয়ে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘বিশ্বকাপকে সামনে রেখে অনেক কিছু করার ভাবনা আছে। আমরা আপাতত আমাদের কম্বিনেশন এবং ম্যাচ পরিকল্পনা নিয়ে ভাবছি। চিন্তা করছি কোনটা বেশি কার্যকর হবে। তবে সিরিজে এটাই আপাতত মনোযোগের কেন্দ্রে আছে।’

ভারতের বিপক্ষে সিরিজে বল-হাতে দুর্দান্ত সাফল্য পেয়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। তাই তরুণদের আগলে রাখার পরিকল্পনা আছে কোচের, ‘আমি নতুনদের মধ্যে বিভ্রান্ত হওয়ার মতো কিছু দেখছি না। তাদের পা মাটিতেই আছে। তাদের কেবল প্রয়োজন হলো, সাফল্য উপভোগ করা। দলের কয়েকজন তরুণ এমন কিছু করেছে, যা আগে কেউ করতে পারেনি। সুতরাং এই সাফল্য তাদের কাছে অভূতপূর্ব। তারা যা করেছে, তা উপভোগ করা তাদের এক রকমের অধিকার।’

প্রতিপক্ষ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতি সম্মান রেখে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সব ফরম্যাটে দক্ষিণ আফ্রিকা অনেক দিন ধরেই খুব ভালো দল। বেশ কয়েক বছর ধরে তারা ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে আসছে। আসন্ন সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকাই ফেভারিট। সেই সঙ্গে তারা খুবই শক্ত প্রতিপক্ষ।’






মন্তব্য চালু নেই