মেইন ম্যেনু

আত্মহত্যার হুমকি দেয়া আ.লীগের সেই বিদ্রোহী প্রার্থী এখন কারাগারে

বরিশালের মুলাদী উপজেলার কাজীরচর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (বহিষ্কৃত) চেয়ারম্যান প্রার্থী ইঞ্জি. ইউসুফ আলী নিজ বাড়িতে কবর খুড়ে আত্মহত্যার হুমকি দেয়ায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা ও আত্মহত্যার প্রচেষ্টার অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

শনিবার ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। দুপুরে আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এনায়েত্ললুাহ দেওয়ান চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউসুফ আলীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) এসএম নাঈমুর রহমান জানান, ইউসুফ আলী নিজ বাড়িতে কবর খুড়ে ঘোষণা দেন নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে তিনি ওই কবরে আত্মহত্যা করবেন। এ খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম মিঠু ও মুলাদী থানার ওসি শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ইঞ্জিনিযার ইউসুফ আলীর বাড়িতে গিয়ে তাকে কৌশলে উপজেলা সদরে নিয়ে আসেন।

ইউসুফ আলীকে আটক করা হয়েছে এমন খবরে তার সমর্থকরা বরিশাল-মুলাদী সড়কের এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে সড়কের ওপর শুইয়ে পড়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। ফলে ওই সড়ক দিয়ে যানবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

খবর পেয়ে বরিশাল থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে সড়ক অবরোধমুক্ত করে। রাতে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন মুলাদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাসির হোসেন। শনিবার তাকে আদালতে পাঠানো হলে বিচারক করাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

স্থানীয়রা জানান, ইঞ্জিনিয়ার ইউসুফ আলী শুক্রবার নিজ বাড়িতে কবর খনন করে ঘোষণা দেন ভোট ডাকাতি করে তার বিজয় ছিনিয়ে নেয়া হলে তিনি আত্মহত্যা করবেন। মৃত্যুর পরে দাফনের জন্য তিনি আগেই কবর খুড়েছেন। কাফনের কাপন পরে ইঞ্জিনিয়ার ইউসুফ আলী নিজের কবর খনন করেন।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মন্টু বিশ্বাস এ খবর মুলাদী থানায় জানালে পুলিশ এবং উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম মিঠু ইউসুফ আলীর বাড়িতে গিয়ে নিরাপত্তার কথা বলে তাকে থানায় নিয়ে যান। এসময় তার কয়েক হাজার সমর্থক বরিশাল-মুলাদী সড়ক অবরোধ করলে পুলিশ লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এর আগে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় ইঞ্জিনিয়ার ইউসুফ আলীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই