মেইন ম্যেনু

আত্রাইয়ে সহস্রাধিক পিএসসি পরীক্ষাথীর পরীক্ষা অনিশ্চিত

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যায় প্রায় অর্ধশত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠন গুলোর পিএসসি ও জিএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন যাবৎ ক্লাস করতে না পারায় এসব পরীক্ষার্থী হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে।

তথ্যঅনুসন্ধানে জানাযায়, গত ২২ আগষ্ট থেকে আত্রাই উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হয়ে নওগাঁর আত্রাইয়ে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও বর্ষণের ফলে উপজেলার ছোট যমুনা নদীর তীরবর্তী ফুলবাড়ী বন্যানিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ, উপজেলার মিরাপুর নামক স্থানে নওগাঁ-আত্রাই আঞ্চালিক সড়কের বাঁধ, ভরতেঁতুলিয়া বেড়িবাঁধ ও হাটকালুপাড়া বন্যানিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে গেলে উপজেলার বির্স্তীন এলাকা প্লাবিত হয়ে যায়।

এসব এলাকা বন্যাকবলিত হওয়ায় উপজেলার পূর্বমিরাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রায়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নন্দনালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাটকালুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শাহাগোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাশিয়াবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কায়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঝনঝনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তারাটিয়া বড়ডাঙ্গা সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়সহ ৩৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ৬টি ম্যাধমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। ফলে আসন্ন পিএসসি জিএসসি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে এই সহস্রাধিক পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকগন।

ঝনঝনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আইনুল হক বলেন, আমাদের বিদ্যালয় বন্যার কারনে বন্ধ থাকার কারনে শিক্ষার্থীদের অনেক ক্ষতি হচ্ছে। উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মোসাদ্দেকুল ইসলাম জানান, এটি একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ।

যার কারনে বিদ্যালয় বন্ধ রাখতে হয়েছে। তারপরও পিএসসি পরীক্ষার্থীদের যে কোন স্থানে ক্লাস চালিয়ে নিতে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আমরা বলেছি। এভাবে ক্লাস চলতে থাকলে পরীক্ষায় কোন বিরুপ প্রভাব পড়বে না।






মন্তব্য চালু নেই