মেইন ম্যেনু

আদালতের নির্দেশ বাড়ি থেকে বেরোলেই কাজের সময় শুরু

সকলের বাড়ি শহরতলিতে একমাত্র কাজের জন্যই শহরে আসতে হয়। শহরে সকলের থাকার মতো ব্যবস্থা নেই তাই প্রতিদিন বাস-ট্রেনে করেই কাজে যেতে হয়। আর এই কাজে যেতেই বেশ কয়েক ঘন্টা সময় লেগেযায়। কাজের জন্য প্রতিদিন এতোটা সময় দিলেও তা এতদিন ব্রিটেনে কাজের সময় হিসেবে ধরা হত না।

কিন্তু এবার আর এমনটা করতে পারবে না ব্রিটিশ সরকার। কাজের সময় নিয়ে একটি মামলায় আদালতে ধাক্কা খেল ডেভিড ক্যামেরনের সরকার। ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস নির্দেশ দিয়েছে, বিভিন্ন ক্ষেত্রের কর্মীরা, যাদের নির্দিষ্ট কোনও অফিস নেই, তাদের ক্ষেত্রে, বাড়ি থেকে বেরিয়ে দিনের প্রথম গ্রাহকের কাছে যেতে যে সময় লাগে, সেটাকেও তাদের কাজের সময়ের মধ্যেই ধরতে হবে। ব্রিটিশ সরকারের দাবি, এতে খরচ বাড়বে। যদিও এই দাবিও খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

কিন্তু নিয়ম থাকলে তো নিয়মের ফাঁকও থাকে। সেই ফাঁক গলে কোনও কর্মী যদি আদালতের এই নির্দেশিকার দোহাই দিয়ে গ্রাহকের বাড়ি যাওয়ার নামে ব্যক্তিগত কাজ করেন তাহলে এর উত্তর কি হবে? এসকল প্রশ্নও উঠেছে এসেছে।

যদিও আদালত এই সব যুক্তি মানতে নারাজ। তাদের দাবি, এরকম সমস্যা হলে তা সংস্থাকেই নির্মূল করতে হবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের নির্দেশিকা অনুযায়ী, ব্রিটেনে সপ্তাহে ৪৮ ঘণ্টার বেশি কাউকে কাজ করানো যায় না। যদি তিনি নিজে না চান। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, এই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই এবার ধরতে হবে বাড়ি থেকে কর্মক্ষেত্রে পৌঁছনোর সময়ও।






মন্তব্য চালু নেই