মেইন ম্যেনু

আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় শামসুদ্দিন আহমেদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর রিভিউ আবেদনের শুনানিকে কেন্দ্র করে আদালত প্রাঙ্গণে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা। মঙ্গলবার সকাল থেকে আদালত প্রাঙ্গণ ও এর আশেপাশে মোতায়েন করা হয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য। আদালতের গেইটে তল্লাশি চালিয়ে ভেতরে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জের আইনজীবী শামসুদ্দিন আহমেদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনালে আজ (মঙ্গলবার) রায় ঘোষণা করা হবে। অন্যদিকে, মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর রিভিউ আবেদনের শুনানি আজ (মঙ্গলবার) কার্যতালিকার ৪ নম্বরে রয়েছে।

গতকাল সোমবার ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল শামসুদ্দিন আহমেদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে রায়ের জন্য আজ (মঙ্গলবার) দিন ঠিক করে আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সীমন ও রেজিয়া সুলতানা চমন। শামসুদ্দিন আহমদের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা এবং অন্যান্য আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন রাষ্ট্রীয় খরচে ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে নিযুক্ত আইনজীবী আব্দুস শুকুর খান।

মানবতাবিরোধী এ মামলায় আইনজীবী শামসুদ্দিন আহমেদ গ্রেফতার রয়েছেন। বাকি চার পলাতক আসামিরা হলেন- শামসুদ্দিনের সহোদর সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মো. নাসিরউদ্দিন আহমেদ, রাজাকার কমান্ডার গাজী আব্দুল মান্নান, আজহারুল ইসলাম ও হাফিজ উদ্দিন।






মন্তব্য চালু নেই