মেইন ম্যেনু

আদিবাসী ভূমিহারা কৃষকদের সম্পত্তি ফেরতের দাবি

সরকারের প্রতি হুশিয়ার করে দিয়ে ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেছেন, এই সরকার সংখ্যালঘু মেহনতী মানুষের সরকার। তাদের সম্পত্তি রক্ষা করা সরকারের দায়িত্ব। সরকার যদি এই মেহনতী মানুষের সম্পত্তি রক্ষার দায়িত্ব না নেয় তাহলে আমরা আন্দোলন সংগ্রাম করে মেহনতী আদিবাসীদের সম্পত্তি রক্ষা করবো।

শনিবার সরকারে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে সাহেবগঞ্জ, বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি এবং আদিবাসি পরিষদ ও গাইবান্ধা জেলা শাখার যৌথ উদ্যোগে বানববন্ধনোত্তর এক সমাবেশে প্রধান অতিধির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা আদিবাসী ছাত্রনেতা শাকিল আহমেদ বুলবুলের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে লেখক গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, ‘এই রাষ্ট্র অঙ্গিকার ভঙ্গ করার রাষ্ট্র। আদিবাসীদের সঙ্গে চুক্তি ভঙ্গ করে তারই প্রমাণ করলো সরকার। আদিবাসীরা এই এদেশের শত শত হতভাগ্য মানুষের মধ্যে অন্যতম।’

মকসুদ বলেন, ‘তাদের সম্পত্তি সরকারি কাজে ব্যবহার হলে আদিবাসীদের কোনো আপত্তি ছিল না। এই নিরীহ মানুষদের বাপ-দাদার ১৮৪২.৩০ একর সম্পত্তি রংপুর সুগার মিলের কাজের জন্য অধিগ্রহণ করা হয়। কিন্তু সেই সম্পত্তি সুগার মিলের কাজে ব্যবহার না হয়ে ব্যক্তিস্বার্থে ব্যবহার করার জন্য অনুমতি দিয়ে সরকার অদিবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।’

তিনি অবিলম্বে একটি উচ্চ পর্যায়ের একটি কমিটি গঠন করার দাবি জানিয়ে বলেন, ‘এই কমিটির সুপারিশে আদিবাসীদের সম্পত্তি ফিরিয়ে দিন।’

এ সময় সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাজ্জাদ জহির চন্দন, জাতীয় আদিবাসী নেতা সনজিব দ্রং, আদিবাসী নেতা রবীন্দ্রনাথ সরেণ, অ্যাডভোকেট বাবুল রবিদাশও বক্তব্য রাখেন।

পরে মানববন্ধন সমাবেশ শেষে আদিবাসীরা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে একটি র‌্যালি বের করেন। র‌্যালিটি শহীদ মিনার থেকে দোয়েল চত্ত্বর, হাইর্কোট হয়ে প্রেসক্লাবে গিয়ে শেষ হয়।






মন্তব্য চালু নেই