মেইন ম্যেনু

আনারস-দুধ একসঙ্গে খেলে কি হয় ?

শুধু গ্রাম অঞ্চলেই নয় শহুরে মানুষের মধ্যে-ও এই কথাটি প্রচলিত আছে যে আনারস এবং দুধ একসঙ্গে দুধ একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়। দুধ এবং আনারস এক সাথে খেলে নাকি তা বিষ হয়ে যায় এবং এর ফলে মৃত্যু হতে পারে। আর এর জন্য সকল মায়েরা তাদের সন্তানদের কে এই দুটি একসাথে খাওয়া থেকে সব সময় বিরত রাখেন। এমনকি লেবুও দুধ একসঙ্গে দেওয়া হয় না।

এসব ধারণার কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, অনেক বাড়িতে ও হোটেলে বিভিন্ন ফল দিয়ে যেসব ডেজার্ট তৈরি হয় তাতে মওসুমি ফল হিসেবে আনারস থাকে। আর এর সাথে অবশ্যই রাখা হয় দুধের তৈরি নানা খাবারের উপকরণ। এমনকি বহির্বিশ্বে অত্যন্ত জনপ্রিয় খাবার কটেজ চিজেও আনারস এবং দুধ একসাথে থাকে। এছাড়াও বড় বড় গ্রোফারি ষ্টোরে প্রাপ্ত বিভিন্ন ইয়োগাটে (দই) দুধ এবং আনারস একসাথেই থাকে।

মানবদেহ আলাদাভাবে দুধকে ভেঙ্গে যেমন শরীরের প্রয়োজনীয় উপাদনে রূপান্তর করতে পারে, ঠিক একই ভাবে আনারসকে ভেঙ্গে শরীরের শোষনীয় উপাদানে পরিনত করতে পারে। তাই এই দুটো জিনিসকে একসাথে খেলে তা বিষে রূপান্তরিত হবার কোন সম্ভবনা নেই।

দুগ্ধজাত খাবার এবং আনারস একসঙ্গে আহারে যদি অসুবিধা না হয় তাহলে দুধ ও আনারস একসঙ্গে খেলে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। প্রকৃতপক্ষে এটি এক ধরনের কুসংস্কার। তো এখন বুঝতে পেরেছেন তো। এর কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।






মন্তব্য চালু নেই