মেইন ম্যেনু

আপনারা প্রস্তাব দিচ্ছেন না কেন : বিএনপিকে নাসিম

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপিকে উদ্দেশ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর
সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা উদার রাজনীতি করেন, তার নেতৃত্বে আমরা নির্বাচন কমিশনকে আরও শক্তিশালী করবো। আপনারা (বিএনপি) প্রস্তাব দিচ্ছেন না কেন? সবার সঙ্গে আলোচনা করেই পরবর্তী নির্বাচন কমিশন আরও শক্তিশালী করা হবে।’

শুক্রবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বঙ্গবন্ধু একাডেমী আয়োজিত চলমান রাজনীতি বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রয়াত ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ আজিজের স্মরণে এ আলোচনার আয়োজন করা হয়।

নাসিম বলেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়নও বলে গেছে নির্বাচনের জন্য বিএনপিকে প্রস্তুত হতে। আমরাও বলি ২০১৯ সালের জন্য প্রস্তুত হোন। হ্যাঁ, শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠনে কারো আপত্তি নেই। প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সামনে এজন্য আলোচনা হয়েছিল, সেখানে খালেদাও ছিলেন। সে অনুযায়ী নির্বাচন হচ্ছে। তাতে আমরা যেমন জিতছি, তেমন হারছিও।’

আলোচনায় বেগম খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘একের পর এক অযৌক্তিক ও পরিপূর্ণভাবে মিথ্যাচার করে খালেদা জিয়া ও বিএনপি নেতারা যেভাবে বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন, তাতে বিদেশিদের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। খালেদা দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন, এদের দ্বারা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি আজ সাংগঠনিকভাবে বিপর্যস্ত, এর জন্য খালেদা নিজেই দায়ী। আমরা চাই বিএনপি শক্তিশালী হোক, রাজনীতির মাঠে হোক আর নির্বাচনের মাঠেই হোক; আমরা তাদের সঙ্গে লড়াই করতে চাই। কারণ, রাজনৈতিক দল ছাড়া রাজনীতিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতে পারে না। কিন্তু খালেদার ভুলে বিএনপি সংসদেও আসন হারিয়েছে।’

এদিকে, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনকে ‘অবৈধ’ আখ্যা দিয়ে তাতে অংশ নেয়নি বিএনপি। বরাবরাই সংগঠনটি বর্তমান সরকারকে ‘অবৈধ’ বলে আসছে।

নাসিম এসব বক্তব্যের সমালোচনা করে বলেন, ‘আপনারা আমাদের অবৈধ বলেন, আর সে অবৈধ সরকারের অধীনেই পৌর-ইউপি নির্বাচন করছেন ধানের শীষ প্রতীকে। আপনাদের কাজেই আপনাদের কথা মূল্যহীন ও গুরুত্বহীন হয়ে গেছে।’

নাসিম বলেন, ‘আপনি (খালেদা) মিথ্যা, অসত্য ও যুক্তিহীন কথা বলে মাঠ গরম করছেন। এতে আপনি নেতৃত্বের যোগ্যতা হারাচ্ছেন। নির্বাচনে যখন আসছেন, তখন বৈধ বা অবৈধ বলে লাভ হবে না। এতে জনগণ হাসে, তামাশা করে আপনাকে নিয়ে। এতে আপনার দলকে ও নিজেকে দুর্বল করছেন আপনি।’

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, সাম্যবাদী দলের হারুন চৌধুরী প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই