মেইন ম্যেনু

আপনার ‘কমন সেন্স’ কতোটুকু? নিজেই পরীক্ষা করুন ছোট্ট একটি কুইজের মাধ্যমে

কমন সেন্স এমন একটি জিনিস যা কাউকে বকে বা কথা শুনিয়ে তার মধ্যে আনা সম্ভব হয় না। এটি আপনা থেকেই মানুষের নিজের মধ্যে হয়ে থাকে। মূলত আমরা কমন সেন্স বিহীন মানুষ তাদেরকেই বলি যারা ভেবে চিন্তে কাজ করেন না বা কথা বলেন না, হুট করে বোকার মতো এমন কাজ করেন বা কথা বলেন যা অন্যের বিরক্তিই উৎপাদন করে থাকে। আচ্ছা আপনি কোন ধরণের মানুষ? আপনার কমন সেন্স কতোটা উন্নত? নিজের বকার মতো কাজে বা কথায় অন্যের চোখে কমন সেন্স বিহীন মানুষ হয়ে যাচ্ছেন না তো? তাহলে নিজেই যাচাই করে নিন এই ছোট্ট কুইজের মাধ্যমে। তবে হ্যাঁ, চিটিং করবেন না। এতে হয়তো নিজের সাথেই প্রতারণা করে ফেলবেন।

১) যদি উত্তর দিক থেকে বাতাস বইতে থাকে তাহলে গাছের চীনাবাদাম কোন দিকে পড়বে?
ক) দক্ষিণ দিকে
খ) মাটিতে
গ) উত্তর দিকে
ঘ) চীনাবাদাম গাছে ধরে না

২) গড়ে একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের কয়টি জন্মদিন থাকে?
ক) ৫৬ টি
খ) ১ টি
গ) ৮৪ টি

৩) কয়টি মাসে ২৮ দিন থাকে?
ক) ১ টি
খ) ৫ টি
গ) ১২ টি

৪) একজন ব্যক্তি যদি ইন্ডিয়ায় থাকেন তাকে কি বাংলাদেশে কবর দেয়া যাবে?
ক) না
খ) হ্যাঁ

৫) যদি ‘রেড হাউজ’ লাল রঙের ইট দিয়ে তৈরি, ‘ব্লু হাউজ’ নীল রঙের ইট দিয়ে তৈরি হয় তাহলে গ্রীন হাউজ কি দিয়ে তৈরি?
ক) সবুজ রঙের ইট দিয়ে
খ) কাঁচ দিয়ে
গ) কাঠ দিয়ে তৈরি

৬) এক গাঁয়ে একতলা বাড়িতে এক মহিলা বাস করেন। তার গোলাপি রঙ খুব পছন্দ। তার সবকিছুতেই গোলাপি, তার সব পোশাক গোলাপি, তার ঘরের সব কিছুর রঙ গোলাপি এমনকি তার পোষা বিড়ালের লোমও গোলাপি। তাহলে তার সিঁড়ির রঙ কি?
ক) গোলাপি
খ) সাদা
গ) তার বাড়িতে সিঁড়ি নেই

৭) অন্ধকার এভারগ্রীন গাছের বন, যেখানে আলো ঢোকে না একেবারেই। এমন একটি বনে খুব জোরে বাতাস বইছে তাহলে গাছের পাতা কোথায় পড়বে?
ক) উড়ে চলে যাবে
খ) মাটিতে পড়বে
গ) এভারগ্রীন গাছে পাতা নেই

সঠিক উত্তর:
১) ঘ) চীনাবাদাম গাছে ধরে না। চীনাবাদাম গাছে ধরে না, চীনাবাদাম মাটির নিচে হয়।
২) খ) ১ টি। একজন মানুষ যতো বছরই বাঁচুক না কেন তার জন্মদিন একটিই থাকে, পরিবর্তন হয় না।
৩) গ) ১২ টি। প্রতিটি মাসেই ২৮ দিন থাকে।
৪) ক) না। ইন্ডিয়ায় থাকা মানুষটি এখনো মারা যান নি যে আপনি তাকে কবর দিতে চাইবেন
৫) খ) কাঁচ দিয়ে। গ্রীন হাউজ কাঁচ দিয়েই তৈরি করা হয়।
৬) গ) তার বাড়িতে সিঁড়ি নেই। একতলা বাড়িতে সিঁড়ি থাকে না।
৭) গ) এভারগ্রীন গাছে পাতা নেই। এভারগ্রীন গাছে পাতা হয় না।

ফলাফল:
প্রতিটি সঠিক উত্তরের জন্য ১০ নম্বর এবং ভুল উত্তরের জন্য ০ ধরে নিজের কমন সেন্স কতোটা নিজেই বের করে নিন।

০ থেকে ৩০ নম্বরের জন্য
আপনার যদি ০ থেকে ৩০ নম্বরের মধ্যে ফলাফল থাকে তাহলে দুঃখের সাথে জানানো যাচ্ছে যে আপনার কমন সেন্স খুবই কম। যাকে নেই বলা চলে। এর কারণ হচ্ছে আপনি মাথা খাটাতে চান না একেবারেই। উত্তরগুলো দেখে মনে হচ্ছে না, যে একটু চিন্তা করলেই বুঝতে পারতেন ট্রিক্সগুলো? ব্যাপারটি আসলে এমনই। একটু মাথা খাটালেই কোথায় কোন উত্তর দেয়া যায় তা নিজেই বুঝতে পারবেন কিন্তু আপনি তা একেবারেই করতে চান না। কোথায় কোন কথা বলা যায় তা নিয়ে চিন্তা করেন না বলেই আপনি অন্যের কাছে কমন সেন্স বিহীন মানুষ হিসেবে পরিচিত। মাথা খাটানোর চেষ্টা করুন। কমন সেন্স বাড়ানোর জন্য চিন্তা করুন।

৩১ থেকে ৫০ নম্বরের জন্য
আপনার কমন সেন্স মাঝারি পর্যায়ের। আপনাকে একেবারে কমন সেন্স বিহীন মানুষ কেউ বলবেন না। আপনার যথেষ্ট বুদ্ধি রয়েছে বলেই জানেন সকলে, কিন্তু আপনার হুটহাট বোকার মতো করা ভুল কাজ সকলেই বিরক্তির চোখে দেখেন। তাই নিজের কমন সেন্সটা আরও একটু বাড়িয়ে নেয়ার জন্য চেষ্টা করতে থাকুন।

৫১ থেকে ৭০ নম্বরের জন্য
আপনি অনেক স্মার্ট একজন মানুষ। আপনি হুট করে কোনো কাজ করেন না। চিন্তা করেই উত্তর দিতে বা কাজ করতে পছন্দ করেন যার কারণে সকলেই আপনাকে বেশ বুদ্ধিমান মানুষ বলেই জানেন এবং আপনার স্মার্টনেসের প্রশংসা করেন। অভিনন্দন আপনাকে।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই