মেইন ম্যেনু

আপনি কি খুব সেলফি তোলেন? জেনে নিন, কোন নয়া অসুখ রয়েছে আপনার অপেক্ষায়…

সেলফি হল হালফিলের সবথেকে সুপারহিট ট্রেন্ড। কিন্তু এর জন্য শরীরে বাসা বাঁধতে পারে নয়া অসুখ। নাম, ‘‘সেলফি এলবো’’। ক’জন তার খোঁজখবর রাখেন?

ভারতে আসার অপেক্ষায় রয়েছে একটি নয়া অসুখ— ‘‘সেলফি এলবো’’। বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে বলছেন, ভারতে সেলফি তোলার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। সেই কারণেই খুব দ্রুত ভারতে এই সমস্যাটি আসতে চলেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলফির জনপ্রিয়তা যেভাবে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে, তাতে অশনি সংকেত দেখছেন অনেকে।
‘‘সেলফি এলবো’’য় কষ্ট পাচ্ছেন, এখনও পর্যন্ত ভারতে তেমন মানুষের সংখ্যা হাতেগোনা। কিন্তু সেলফি তোলার ‘রোগ’ যেভাবে দিনে দিনে বাড়ছে, তাতে এই সমস্যাও যে সমান্তরালভাবে বাড়বে, তা নিয়ে সংশয় নেই চিকিৎসকমহলে।

‘টেনিস এলবো’ বা ‘গল্‌ফার এলবো’-র কথা এই দেশে অজানা নয়। স্বয়ং সচিন তেন্ডুলকর টেনিস এলবো নিয়ে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলে গিয়েছেন। বহু খেলোয়াড়ই এই সমস্যায় ভুগেছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, যে হাতে আপনি সেলফি তুলতে অভ্যস্ত, সেই হাতের কনুইয়ে সমস্যাটি বাসা বাঁধবে। তাঁদের আশঙ্কা, সেই দিন খুব দূরে নেই যখন দেশের কোনও টিনএজার কনুইয়ে ব্যথা নিয়ে চিকিৎসকের দ্বারস্থ হবেন।

অস্থি বিশেষজ্ঞ ধনঞ্জয় গুপ্তা মনে করেন, ‘‘সেলফি তোলা একটা এমন খেলা যেটা সকলেই খেলতে পারে। আর মনে রাখা প্রয়োজন, খেলাধুলোয় চোটআঘাত তো থাকেই।’’ আর এক অস্থি বিশেষজ্ঞ নিশ্চল চুঘের ব্যাখ্যা, ‘‘প্রচুর সেলফি তোলা একটা মারাত্মক ব্যাপার। সেলফি এলবো-র যন্ত্রণা এমন পর্যায়ে যেতে পারে যে, আপনাকে অফিস থেকে ছুটিও নিতে হতে পারে।’’ তৃতীয় অস্থি বিশেষজ্ঞ রমনকান্ত অগ্রবাল বলছেন, ‘‘সেলফি এলবো কতটা মারাত্মক আকার ধারণ করবে, সে সম্পর্কে এখনই ভবিষ্যদ্বাণী করা সম্ভব নয়। কিন্তু কনুই আর আঙুল যদি কেউ একইভাবে ক্রমাগত ব্যবহার করতে থাকেন, তা হলে নিশ্চিতভাবেই এই দু’টি জায়গার উপরে চাপ পড়ে। সমস্যা অনিবার্য।’’

কেমন হতে পারে সেই যন্ত্রণা? বলা হচ্ছে, একবার সেলফি এলবো ধরে গেলে, ন্যূনতম চাপেও প্রবল যন্ত্রণা হবে। আর এই সমস্যার আরও একটি দিক রয়েছে। মনে করার কোনও কারণ নেই যে, বেশি বয়সেই এই সমস্যাটি ধরবে। অল্পবয়সেও এই সমস্যা ধরতে পারে। বরং বলা ভাল, এই সমস্যাটি ছেলেছোকরাদের হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

অতএব, সেলফি হইতে সাবধান।






মন্তব্য চালু নেই