মেইন ম্যেনু

আবারও বাড়বে গ্যাসের দাম, শঙ্কা শিল্পোৎপাদন ব্যাহতের

মাত্র ৯ মাসের ব্যবধানে আবারও গ্যাসের মূল্য বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে সরকার। এতে করে সব ধরনের শিল্পোৎপাদন ব্যাহতের পাশাপাশি ব্যবসায় বড় ধরনের প্রভাব পড়তে পারে। এ নিয়ে সম্প্রতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)।

সোমবার (২৭ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় এ উদ্বেগের কথা জানায় সংগঠনটি।

ডিসিসিআই বলছে, ক্যাপটিভ পাওয়ার প্ল্যান্টের জন্য ব্যবহৃত প্রতি ঘনফুট গ্যাসের মূল্য প্রায় ১৪০ শতাংশ, গৃহস্থালিতে ব্যবহার্য গ্যাসের জন্য ৮৫ শতাংশ, রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস (সিএনজি)’র জন্য ৮৩ শতাংশ এবং বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহৃত গ্যাসের জন্য ৭২ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধির সম্ভাব্য পরিকল্পনা করছে সরকার।

গ্যাস উৎপাদান ও সরবরাহের সর্বোচ্চ প্রস্তাবিত ১৪০ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধি দেশের তৈরি পোশাক রপ্তানি, চামড়া শিল্প, জাহাজ নির্মাণ শিল্প, বিদুৎ উৎপাদন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পসহ অন্যান্য গ্যাস নির্ভর শিল্প-কলকারখানার উৎপাদনকে ব্যাহত করবে বলে মনে করছে ডিসিসিআই। এর প্রভাবে বাংলাদেশের রপ্তানি সক্ষমতা ও বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ নিরুৎসাহিত হতে পারে বলে ধারণা করছে সংগঠনটি।

গ্যাসের মূল্য পুনরায় বাড়ানো হলে তৈরি পোশাক খাত এবং অন্যান্য আমদানি বিকল্প রপ্তানি নির্ভর শিল্প পণ্যের উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়ায় তাদের আন্তর্জাতিক বাজারে টিকে থাকার সম্ভাবনা কমে আসবে। বাণিজ্যিক পরিবহন খাতে এর প্রভাব পড়ার কারণে ব্যবসায় ব্যয় বাড়বে। পণ্য সরবরাহ (সাপ্লাই চেইন) ব্যয় বাড়ার প্রভাব সাধারণ ভোক্তাশ্রেণির উপর গিয়ে পড়বে। এ ধরনের মূল্যবৃদ্ধি অনৈতিকভাবে অপব্যবহারের সম্ভাবনা সৃষ্টি করতে সহায়তা করবে বলে ডিসিসিআই মনে করছে।

সংগঠনটি আরও জানায়, গ্যাসের মূল্য বাড়ানো হলে স্বল্প আয়ের মানুষের ক্রয়ক্ষমতার উপর অতিরিক্ত চাপ তৈরি হতে পারে। এছাড়াও শিল্পায়ন, ব্যবসায় প্রবৃদ্ধি, মূল্যস্ফীতির উপর এর প্রভাব পড়তে পারে।

এমতাবস্থায় গ্যাসের মূল্য এখনই বৃদ্ধি না করে বরং শিল্প কল-কারখানায় চাহিদা মাফিক প্রয়োজনীয় গ্যাস সরবরাহ করার উপর তাগিদ দিয়েছে ডিসিসিআই। কেননা গ্যাসের অভাবে এখনও অনেক শিল্প-কলকারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। একই সাথে ডিসিসিআই সরকারকে গ্যাস উত্তোলন ও সরবরাহ নীতিমালার পাশাপাশি তিন বছর মেয়াদি গ্যাসের মূল্য নির্ধারণ করার জন্য প্রস্তাব করছে।






মন্তব্য চালু নেই