মেইন ম্যেনু

আব্বাস উদ্দীনের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

পল্লীগানের সম্রাট শিল্পী আব্বাস উদ্দীনের ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৫৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর এই লোকসঙ্গীত শিল্পী মৃত্যুবরণ করেন। নানা আয়োজনে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন এই গুণী শিল্পীকে স্মরণ করছে আজ।

আব্বাস উদ্দীন ১৯০১ সালের ২৭ অক্টোবর পশ্চিমবঙ্গের কুচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ মহকুমার বলরামপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম জাফর আলী আহমদ এবং মায়ের নাম বেগম লুৎফন নেসা। রংপুর ও কোচবিহার অঞ্চলের ভাওয়াইয়া, ক্ষীরোল চটকা গেয়ে আব্বাসউদ্দীন প্রথমে সুনাম অর্জন করেন।

আধুনিক, স্বদেশী, ইসলামী, পল্লীগীতি, উর্দুসহ নানা ধরনের গান তিনি গেয়েছেন। তবে পল্লীগীতিতে তার মৌলিকতা ও সাফল্য সবচেয়ে বেশি। তিনি প্রথমে ছিলেন পল্লীগানের একজন সাধারণ গায়ক। যাত্রা, থিয়েটার ও স্কুল-কলেজের সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান শুনে তিনি এর প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন। পরে নিজ চেষ্টায় গান গাওয়া রপ্ত করেন। তিনি কিছু দিন ওস্তাদ জমিরউদ্দীন খাঁর কাছে উচ্চাঙ্গসঙ্গীত শিখেছিলেন।

`আমার শিল্পীজীবনের কথা` (১৯৬০) আব্বাসউদ্দীনের রচিত একমাত্র গ্রন্থ। সঙ্গীতে অবদানের জন্য তিনি মরণোত্তর প্রাইড অব পারফরম্যান্স শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার এবং স্বাধীনতা দিবস পুরস্কারে (১৯৮১) ভূষিত হন।






মন্তব্য চালু নেই