মেইন ম্যেনু

আমরা স্বপ্ন দেখি কেন?

আমাদের মাঝে প্রায়ই স্বপ্ন নিয়ে কৌতূহল দেখা যায়। আমরা কেন স্বপ্ন দেখি এবং এর পেছনে আদৌ কোন কারণ রয়েছে কিনা তা জানার জন্য আমাদের মাঝে কমবেশি আগ্রহ দেখা যায়। স্বপ্ন দেখার পরে অনেকের অনেক কিছু মনে থাকে আবার অনেকে বলতে পারেনা স্বপ্নে কি দেখেছে।

এই স্বপ্ন দেখা বা না দেখা নিয়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরণের রহস্য। আসুন স্বপ্নের সেই অজানা রহস্য সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

১. শিশুদের বয়স তিন থেকে চার বছর হবার পর তারা নিজেদের স্বপ্নে দেখতে পায়। এর আগে তারা নিজেদের দেখতে পারে না।

২. যারা ঘুমের মাঝে নাক ডাকেন, তারা নাক ডাকা অবস্থায় কোন স্বপ্ন দেখতে পারেন না।

৩. একজন মানুষ গড়ে তার জীবনের ৬ বছর স্বপ্ন দেখার মাধ্যমে কাটিয়ে দেয়।

৪. যে সকল মানুষের নিজেদের ব্যক্তিত্ব নিয়ে সমস্যা রয়েছে তারা খুব কম স্বপ্ন দেখে।

৫. ঘুম থেকে উঠার ১ মিনিটের মাঝে আমরা স্বপ্নে দেখা কাহিনীর ৯০ শতাংশ ভুলে যাই।

৬. আমরা আমাদের স্বপ্নে শুধুমাত্র নিজেদের পরিচিত মানুষদের দেখতে পাই।

৭. খুব কম মানুষ নিজেদের স্বপ্নে ভবিষ্যৎ দেখতে পারে। অর্থাৎ অনেকে আগামীতে কি হবে তা স্বপ্নের মাধ্যমে দেখতে পারেন।

৮. স্বপ্নের মাঝে আপনি ঘড়ির সময় পড়তে বা বলতে পারবেন না।

৯. এক রাতে আপনি সাত ধরণের স্বপ্নও দেখতে পারবেন।

১০. মানুষের মস্তিষ্ক ঘুমানোর সময় বেশি কার্যকর থাকে।

১১. বিভিন্ন জীবজন্তুও ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখে।

১২. অন্ধ মানুষ স্বপ্ন দেখতে পারে। স্বপ্নে সে নিজের দৃষ্টিশক্তি ফিরে পায়।

১৩. আপনি যখন স্বপ্ন দেখেন তখন আপনার শরীর প্যারালাইজড অবস্থায় থাকে।–সুত্র: ইন্ডিয়া টাইম্‌স।






মন্তব্য চালু নেই