মেইন ম্যেনু

‘আমাকে নর্তকী বললেও কোন সমস্যা নেই’

তৃতীয়বারের মত ভারতের জাতীয় পুরস্কার হাতে নেয়ার পর কঙ্গনা ভারতীয় একটি জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভিকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। যেখানে তিনি বিভিন্ন ধরণের কথা বলেছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে ঋত্বিক ও তার মাঝে যে মামলা চলছে তা নিয়েও কথা বলেছেন তিনি। কঙ্গনা ঋত্বিকের বিরুদ্ধে মামলা করে বলেছিলেন, একসময়ে তাদের মাঝে সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ঋত্বিক নিজে তার পেছনে পড়েছিলেন। কিন্তু তদন্তে সর্বকুলে শুধু কঙ্গনার দোষ উঠে আসে। কঙ্গনার কথা সবসময় বেশ খোলামেলা হয়। এবারও তিনি ব্যতিক্রম নন। তবে এবার সাক্ষাৎকারে যে কথাগুলো বলে তিনি সমালোচকদের মুক্ষম জবাব দিয়েছেন, তা নিম্নে দেয়া হল-

১. আমি আমার ভঙ্গুর শরীর এবং ধারালো মন নিয়ে গর্বিত।

২. একজন নারী যখন অনেক বেশি সফল হয়, তখন তাকে একজন মানসিক রোগী বলা হয়।

৩. আমার সফলতা সকল বিতর্কের বিরুদ্ধে আমার মিষ্টি প্রতিশোধ।

৪. আমি নিজেকে খুশি রাখতে বেশি পছন্দ করি, মানুষের খুশির জন্য না।

৫. নারী হিসাবে আমাদের নিজেদেরকে অত্যন্ত দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে আসতে হয়।

৬. কেউ আমাকে মানসিক রোগী, জাদুকরী বা নর্তকী বলে ডাকলেও তা আমি অপমানজনক বলে মনে করি না।

৭. একজন নারী যখন যৌন সক্রিয় হয়, তখন তাকে নর্তকী বলা হয়।

৮. সাফল্য এবং বিদ্রূপ এর সাহায্যে নারীদের হত্যা করা যায়, তাহলে হাত ব্যবহার করার প্রয়োজন কি?

৯. কখনও কখনও আপনার খারাপ দিন যাবে, আবার কখনও আপনি খুব ভাল দিনের দেখা পাবেন। একটি গ্রাম থেকে আমার এখানে আসার যাত্রা অসাধারণ।

১০. আমি অন্যকারও মত নিজেকে প্রকাশ করতে পাড়ি না। আমি যেমন তেমনি।

১১. আমার মনে হয় আমার যাত্রা একটি রোলার কোস্টারের মত কিন্তু আমি মনে করি তা সঠিক পথে যাচ্ছে।

১২. প্রতিটি প্রয়াস আমাকে বিব্রত করার জন্য তৈরি করা হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই