মেইন ম্যেনু

‘আমিতো বিয়ে করতে চাই, পাত্র খুঁজুন’

লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় মধ্য দিয়ে শোবিজ ক্যারিয়ার শুরু করেন মডেল অভিনেত্রী মৌনিতা খান ঈশানা।

বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে পরিচিতিটা তৈরি হলেও নাটকেই এখন বেশি সময় দিচ্ছেন তিনি। বর্তমানে ঈশানা অভিনীত একাধিক ধারাবাহিক নাটক বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে ‘হাই সোসাইটি’, ‘সম্রাট’, ‘ খেলাঘর’, ‘শান্তি অধিদপ্তর’, ‘তুমি আসবে বলে’, ‘এক পা দু পা’। ধারাবাহিকেই এখন নিয়মিত সময় দিচ্ছেন ঈশানা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখন ‘শান্তি অধিদপ্তর’ নাটকের কাজ চলছে। বেশ দারুণ একটি গল্প। শান্তি পাওয়ার আশায় অনেকেই ‘শান্তি অধিদপ্তর’ অফিসে ভিড় জমায়। তুবও কেউ শান্তি পায় না। আর এই অফিসের কর্মকর্তারাও পরিবার নিয়ে ভীষণ অশান্তিতে থাকে। এভাবেই ধারাবাহিকটি সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

এতে আমার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন ফজলুর রহমান বাবু, অহনা, ডা. এজাজ সহ আরও অনেকে। এ নাটক ছাড়া আরও কয়েকটি ধারাবাহিকের কাজ করছি। গল্পগুলো বেশ চমৎকার। অনেকে বলেন, আমাদের ধারাবাহিকের মধ্যে কোনো নতুনত্ব নেই। তবে এ নাটকগুলো দেখলে তাদের ধারণা পাল্টে যাবে বলেই আমি বিশ্বাস করি।

ধারাবাহিকের কাজছাড়া বর্তমানে আসছে কোরবানির ঈদ উপলক্ষে কয়েকটি নাটকের কাজ শেষ করেছেন ঈশানা। এর মধ্যে রয়েছে ‘বোকা প্রেমের গল্প’, ‘ফোকাল পয়েন্ট’ ‘ময়নাগুড়ী টি স্টেট’। ঈদের এই প্রস্তুতি সম্পর্কে ঈশানা বলেন, বেশকিছু খন্ড নাটকের কাজ শেষ করেছি।

আশা করছি ঈদে দর্শকের সামনে ভালো কিছু নিয়ে উপস্থিত হতে পারবো। অভিনেত্রী হিসেবে সব ধরনের নাটকেই কাজ করতে হয়। তবে খন্ড নাটক কিংবা ধারাবাহিকের মধ্যে বিশেষ পছন্দের জায়গা তো অবশ্যই আছে। সেক্ষেত্রে খন্ড নাটকেই বেশি সাচ্ছ্বন্দ্যবোধ করেন ঈশানা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একজন অভিনেত্রী হিসেবে আমাকে দুই ধরনের নাটকেই অভিনয় করতে হয়। আর দুই ক্ষেত্রের কাজতো একটাই। সেটা হলো অভিনয়। তাই এটাকে আলাদা করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। আমার কাছে খন্ড নাটক হলো প্যাশন।

আর ধারাবাহিক হলো পেশা। তবে খুব ভালো লাগার কথা যদি বলি, খন্ড নাটকের কথাই বলবো। কারণ এ ধাঁচের নাটক দর্শক দেখে শেষ করতে পারেন। তড়িৎ রেসপন্স পাওয়া যায়। আর ধারাবাহিকের গল্প এক জায়গায় থাকে না। প্রথম দিকে ভালো রেসপন্স থাকলেও পরে কোথায় যেন গল্প হারিয়ে যায়।

নাটকে বাজেট একটা বড় সমস্যা এ কথা সবাই জানেন। আমার মনে হয় বাজেটের কারণেই এমনটা হচ্ছে। দর্শক ধারাবাহিক নাটক এখন দেখতে চান না। এসব নাটকের গল্প ভালো হলেও দেখা যায় তাদের গন্তব্য ভারতীয় চ্যানেলের দিকে। তাই বলে আমাদের মেকিং খারাপ হচ্ছে বা নিজেদের দূর্বলতা রয়েছে সেটা না।

সবচেয়ে বড় ঘাটতি হলো বাজেট। এ সমস্যা দূর হলেই নাটকে সুদিন ফিরে আসবে বলে আমি বিশ্বাস করি। অভিনেত্রীর আগে একজন মডেল হিসেবেই বেশি পরিচিত ঈশানা। একসময় বিজ্ঞাপনেই তার উপস্থিতি বেশি লক্ষ্য করা যেত। এখন সে তুলনায় কাজ কমিয়ে করছেন।

তবে এক বছর পর আবারও বিজ্ঞাপনে ফিরেছেন ঈশানা। সম্প্রতি দিদারুল আলম স¤্রাটের নির্দেশনায় একটি বহুজাতিক কোম্পানির কুকওয়্যার পণ্যের মডেল হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। এর আগে গত বছর কাজ শেষ করা গোদরেজ হেয়ার কালারের বিজ্ঞাপনে দেখা গেছে তাকে।

এতে তার সহশিল্পী ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। কাজ নিয়মিত করছেন ঈশানা। প্রতিদিনই শুটিং স্পটে সময় দিতে হচ্ছে তাকে।

কিন্তু তার সমসাময়িক অনেকে বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন। এ নিয়ে ঈশানার ভাবনা কি জানতে চাইলে বলেন, আমিতো বিয়ে করতে চাই, পাত্র খুঁজুন। ভালো ছেলের খোঁজ পেলে জানাবেন।-এমজমিন






মন্তব্য চালু নেই