মেইন ম্যেনু

আমির কী যুক্তরাজ্যের ভিসা পাচ্ছেন?

স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারি থেকে মুক্তি পেয়েও স্বস্তিতে নেই আমির। নানা কারণে বিব্রতকর পরিস্থিতি সামলাতে হচ্ছে তাকে। মানুষের কটু কথা তো আছেই, সেই সঙ্গে এবার ভিসা পাওয়া নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তিনি। সামনের মাসে পাকিস্তানের যুক্তরাজ্য সফর রয়েছে। দেশটির নিয়মানুযায়ী জেলখাটা অপরাধীরা নির্দৃষ্ট একটা সময়ের আগে ভিসা পান না। তবে পিসিবি আশা করছে, আমিরের বিষয়টি অন্যভাবে বিবেচনা করবে যুক্তরাজ্য সরকার।

পিসিবির উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পিটিআই বলছে, অন্য দুই স্পট ফিক্সার সালমান বাট এবং মোহাম্মদ আসিফ যুক্তরাজ্যের ভিসা না পেলেও আমিরের কিছুটা সুযোগ রয়েছে।

‘আসিফ, বাট যুক্তরাজ্যে নিষিদ্ধ হলেও আমিরকে তা কিন্তু করা হয়নি। একটি চুক্তির মাধ্যমে আমির যুক্তরাজ্য থেকে জেল খেটে দেশে ফেরেন।’

‘বাট ২০২০ সাল পর্যন্ত দেশটির ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। কিন্তু আমিরের ব্যাপারটি ওরকম নয়। পিসিবি চেষ্টা করছে দেশটির প্রশাসনকে বোঝাতে। নিউজিল্যান্ড সফরের সময়ও আমিরের ব্যাপারটি ব্যতিক্রম হিসেবে বিবেচনা করা হয়।’ বলেন পিসিবির ওই কর্মকর্তা।

ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডও নাকি সাহায্য করছে আমিরের যুক্তরাজ্যের ভিসা পাওয়ার ব্যাপারে।

পিসিবির যুক্তি, স্পট ফিক্সিং করার সময় আমিরের বয়স খুব অল্প ছিল। যুক্তরাজ্যকে এই দিকটিও বিবেচনা করতে অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

পিসিবি জানিয়েছে, ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড এবং যুক্তরাজ্যের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার অপেক্ষায় আছেন তারা।






মন্তব্য চালু নেই