মেইন ম্যেনু

আমি কারো পকেটের লোক নই : সিএমপি কমিশনার

চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মো. ইকবাল বাহার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি কারো পকেটের লোক নই। কারো পকেটের লোক হওয়ার জন্য এ পেশায় আসিনি। আমি জনগণের সেবক হতে চাই।

দায়িত্ব নেয়ার এক মাস পার হতে না হতেই সিএমপিকে ঢেলে সাজাচ্ছেন তিনি। ঢাকার মত চট্টগ্রাম মহানগরীতেও ‘অালগা স্টিকার’ ব্যবহারে নির্দেশনা জারি, ১৬টি থানায় ১৪৫টি টিমের সমন্বয়ে বিট পুলিশিং ব্যবস্থা, অপরাধ দমনে বাড়ির ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহে ১৫ লাখ ফরম ছাপানো, পুলিশি সেবা নিশ্চিত করতে থানায় থানায় সিসিটিভি স্থাপনহ নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন তিনি।

এসব কি বাস্তবায়ন হবে এমন প্রশ্নে সিএমপি কমিশনার বলেন, আমি কারো পকেটের লোক নই, আর কারো পকেটের লোক হওয়ার জন্য এ পেশায় আসিনি।

রোববার বেলা ১২টায় সিএমপির কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ইকবাল বাহার বলেন, প্রতিটি বাড়িতে ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এ জন্য ১৫ লাখ ফরম ছাপানো হয়েছে। আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে এ তথ্য সংগ্রহের কাজ শেষ হবে। মহানগরীতে ১৬টি থানায় ১৪৫টি বিট পুলিশিং থাকবে। যাদের কাজ হবে, জনগণের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা। এসব করতে গিয়ে সামাজিক, রাজনৈতিক দায়বদ্ধতা থাকবেই। এর মধ্যেও কাজ শেষ করতে হবে।

তিনি বলেন, মুসলিম ধর্মে হাদিসে একটি কথা অাছে- কেউ অপরাধ করতে দেখলে সামর্থ্য থাকলে প্রথমে বাধা দেয়া, তা যদি না পারে তাহলে অপরাধের প্রতিবাদ করা, তাও যদি না পারে তাহলে ঘৃনা করা।

সিএমপি কমিশনার বলেন, অাশা করি আমাদের সেই সামর্থ্য অাছে। কেউ অপরাধ করতে দেখলে এ বিট পুলিশ বাধা দেবে। সবাইকে আইনের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে হবে। আইন মেনে চললে দেশে কোনো অপরাধ হবে না।

তিনি বলেন, সাংবাদিকরা আমাকে একটি প্রস্তাব দিয়েছেন সিএমপিতে একটি মিডিয়া সেন্টার করার। আমি প্রস্তাব গ্রহণ করে এরই মধ্যে মিডিয়া সেন্টার তৈরি করে ফেলেছি। যেখানে ২০-২৫ জন বসে মতামত প্রকাশ করতে পারবেন। সিএমপির একটি পেজও চালু করা হয়েছে, যেটি আগে আপডেট ছিল না। এখন প্রতি ঘণ্টায় ঘন্টায় আপডেট দেবে।

সিএমপি কমিশনার বলেন, জনগণ এ পেজে ইনবক্সে যেকোনো ধরনের অভিযোগ দিতে পারবেন। আমি নিজেই এটির তদারকি করে ব্যবস্থা নেব।

তিনি বলেন, প্রতিটি থানাকে সিসি ক্যামরার আওতায় অানা হবে। এরই মধ্যে ১৬টি থানাকে সিসি ক্যামরার আওতায় আনা হয়েছে। এটির মনিটরিং আমি নিজেই করব।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মার্চ আবদুল জলিল মন্ডলকে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক পদে বদলি করে তার স্থলে ইকবাল বাহারকে চট্টগ্রামের পুলিশ কমিশনারের দায়িত্ব দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে পুলিশ সদর দপ্তর।

গত ১০ এপ্রিল সিএমিপর দায়িত্ব গ্রহণ করেন ইকবাল বাহার।






মন্তব্য চালু নেই