মেইন ম্যেনু

‘আমি দুধে ধোয়া নই’

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানিদের পক্ষে জামায়াতে ইসলামীর সহযোগিতার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে মতিউর রহমান নিজামীর প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন মঙ্গলবার আদালতে নিজেকে নিজামী হিসেবে উপস্থাপন করেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমি দুধে ধোয়া নই।’

আপিল বিভাগে যুক্তি খণ্ডনের সময় প্রধান বিচারপতি নিজামীর আইনজীবীদের উদ্দেশে বলেন, একাত্তর সালে জামায়াতের এবং তাদের নেতাদের কর্মকাণ্ড দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

এ সময় খন্দকার মাহবুব বলেন, তখন পাকিস্তানের অখণ্ডতা রক্ষায় রাজনৈতিক বিশ্বাস থেকে জামায়াতে ইসলামী পাকিস্তানের পক্ষ নিয়েছিল। আর নিজামী ওই দলের কর্মী হিসেবে রাজনৈতিক বিশ্বাস থেকে পাকিস্তানের পক্ষ নিয়েছিলেন। নিজামী দুধে ধোয়া নন।

একপর্যায়ে খন্দকার মাহবুব আদালতে নিজেকে নিজামী হিসেবে উপস্থাপন করে বলেন, ‘আমি (নিজামী) দুধে ধোয়া নই।’

তিনি আরো বলেন, ‘যা করেছে পাকিস্তানিরা। আমি (নিজামী) ছিলাম ২০ বছরের এক যুবক। আমার কথায় কি পাক আর্মিরা মানবে?’

এর আগে যুক্তিতর্কের সময় খন্দকার মাহবুব একাত্তরে নৃশংস ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন। তবে তিনি দাবি করেন, এসব অপরাধে তার মক্কেল নিজামী জড়িত নন। তারপরও আদালত যদি কোনো অভিযোগে নিজামীকে অভিযুক্ত করেন, তাহলে বয়স বিবেচনায় তাকে মৃত্যুদণ্ড না দেওয়ার অনুরোধ জানান খন্দকার মাহবুব।






মন্তব্য চালু নেই